Home আরোও বিভাগ টিভি গাইড এখনও জানার ও শেখার চেষ্টা করছি

এখনও জানার ও শেখার চেষ্টা করছি

SHARE
Jui

ছোটপর্দার ব্যস্ত অভিনেত্রী রোবেনা রেজা জুঁই। বিভিন্ন চ্যানেলে প্রচার হচ্ছে তার একাধিক ধারাবাহিক নাটক। বিশেষ দিবসের খÐ নাটকেও দেখা যায় তাকে। কথা হলো তার সঙ্গে-

আনন্দ আলো: যা নিয়ে ব্যস্ত আছেন?

জুঁই: বর্তমানে আমি হাফ ডজন ধারাবাহিকে নিয়মিত শুটিং করছি। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে- রুলীন রহমানের ‘ভালোবাসা কারে কয়’, কায়সার আহমেদের ‘মহাগুরু, অরণ্য আনোয়ারের ‘ফুলএইচডি’, শামীম জামানের ‘মওকা মালয়েশিয়া’ এবং সাগর জাহানের ‘ল্যাম্পপোস্ট’- এই নাটকগুলোর শুটিং নিয়ে ব্যস্ত আছি।

আনন্দ আলো: নাটকগুলোতে চরিত্রগুলো কেমন?

জুঁই: বর্তমান সময়ে ধারাবাহিকগুলোর গল্প ও চরিত্রে নতুনত্ব না থাকলে দর্শক ধরে রাখা সম্ভব নয়। তাই অনেকগুলো ধারাবাহিকে অভিনয় করলেও আমার অভিনীত প্রতিটি চরিত্রে ভিন্নতা রয়েছে। এ জন্য ধারাবাহিকগুলো দর্শকদের মধ্যে সাড়া ফেলেছে। বিশেষ করে ‘ল্যাম্পপোস্ট’ ও ‘মহাগুরু’ ধারাবাহিকের জন্য বেশি সাড়া পাচ্ছি।

আনন্দ আলো: টার্নিং পয়েন্ট কোনটা?

জুঁই: আমি ‘সিমিলার টু’ শীর্ষক একটি খÐ নাটকে প্রথম অভিনয় করি। আর আমার অভিনীত প্রথম ধারাবাহিক নাটক ছিল ‘জামাই মেলা’। দুটি নাটকই দর্শকদের মধ্যে দারুণ সাড়া ফেলে। এরপরই অভিনয়ে ব্যস্ততা বাড়তে থাকে।

আনন্দ আলো: সহশিল্পী হিসেবে মোশাররফ করিম…

জুঁই: অভিনয়ের সময় আমি মোশাররফকে একজন শিল্পী হিসেবেই দেখি। এ ছাড়া শুটিং স্পটে অভিনয়ের সময় চরিত্রটির মধ্যেই ডুবে থাকি। তখন চিন্তায় থাকে পরিচালক আমার কাছে কী চান এবং সেটি আমি সঠিকভাবে কতটুকু দিতে পারছি। তবে বিভিন্ন সময়ে অভিনয় সম্পর্কে নানা ধরনের টিপস দিয়ে সহযোগিতা করে মোশাররফ করিম। এখন আমিও বিভিন্নভাবে জানার ও শেখার চেষ্টা করছি। অভিনয়টাকে নিজের মধ্যে লালন করে চরিত্রানুযায়ী অভিনয় করে যাচ্ছি।

চার বছর পর ধারাবাহিক নাটকে পিয়া

২০১৪ সালে এসএ টিভির ‘কালার’ ছিল জান্নাতুল ফেরদৌস পিয়ার সবশেষ ধারাবাহিক নাটক। চার বছর পর নতুন ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করলেন তিনি। এটি হলো ‘আমি তুমি সে’। নাগরিক টিভির এই ধারাবাহিকের প্রচার শুরু হবে শিগগিরই। নাটকটিতে পিয়ার চরিত্রের নাম শিরিন। সে অতি সাধারণ। গ্রামেই বেড়ে ওঠা তার। একদিন রাস্তায় মডেল ফটোগ্রাফির বিজ্ঞাপন দেখে স্টুডিওতে ছবি তুলতে যায় সে। নিজেকে র‌্যাম্পে কল্পনা করে শিরিন। কিন্তু অসুস্থ বাবার কাশির শব্দে তার কল্পনা ভেঙে যায়। তার দেখা সহজ স্বপ্নগুলো কতটা মসৃণ? জানা যাবে ‘আমি তুমি সে’ ধারাবাহিকে। নাটকটি লিখেছেন ধ্রæবনীল, পরিচালনায় মাইনুল হাসান খোকন। এতে আরও অভিনয় করেছেন বাঁধন, নিলয়, তুষ্টি, সোহান খান, কাজীরাজু, নাফা, মম মোর্শেদ প্রমুখ।

তাদের তিনজনের দহনকালের ভালোবাসা

জারিফ একসাথে অনেকগুলো মেয়ের সাথে প্রেম করে। তার আনিকার সাথে প্রেম হয়। কিন্তু জারিফ আনিকার সাথে প্রেম করার পরও আশরিন নামের আরেকটি মেয়ের সাথে প্রেম করে। একপর্যায়ে আনিকার সাথে  প্রেমটাও শেষ হয়ে যায়। চলতে থাকে আশরিনের সাথে রোমান্স। একদিন আশরিন বাসায় আসতে বলে জারিফকে। সে আসার পর আশরিন অন্যরকম এক অধ্যায় উপহার দেয় তাকে। ঘটে অন্যরকম এক ঘটনা। সেই ঘটনার বিস্তারিত জানা যাবে ‘দহনকালের ভালোবাসা’ নাটকে। এটি পরিচালনা করেছেন হারুন রুশো। স¤প্রতি নগরীর উত্তরাসহ বেশকিছু জায়গায় এর শুটিং শেষ হয়। এতে জারিফ চরিত্রে ইরফান সাজ্জাদের দুই প্রেমিকার চরিত্রে দেখা যাবে আনিকা চরিত্রে ঈশানা এবং আশরিন চরিত্রে নৃত্যশিল্পী ও অভিনয়শিল্পী রুহীকে। এতে আরো অভিনয় করেছেন আফরোজা। ত্রিধারা প্রযোজিত নাটকটি খুব শিগগিরই একটি বেসরকারি চ্যানেলে প্রচার হবে বলে নির্মাতা জানান।