সুরিনগর-এ আছে  অনেক চমক!

সুরিনগর-এ আছে  অনেক চমক!

915
0
SHARE

যুক্তরাজ্যে টেলিভিশনের জন্য একাধিক অনুষ্ঠান, ডকুড্রামা নির্মাণ করেছেন মিনহাজ কিবরিয়া। বাংলাদেশের জন্য এই প্রথম সিনেমা নির্মাণ করেছেন। নাম ‘সুরিনগর’। ঢাকা শহরের বিভিন্ন এলাকাসহ লন্ডনেও ছবিটির স্যুটিং হয়েছে। এটি সিনেমা নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে ‘আনন্দ আলো’র প্রথম ছবি।  একজন তরুণের জীবন বাস্তবতার গল্প ‘সুরিনগর’। কাহিনীর প্রয়োজনে অন্ধকার জগতের অনেক কিছুই উঠে এসেছে এই ছবিতে। পাশাপাশি আছে প্রেম, ভালোবাসার আবেগঘন অনেক মুহ‚র্ত। যা দর্শককে ভাবাবে, কাঁদাবেও।  ওয়াশ আউট নিবেদিত এবং পাওয়ার্ড বাই সিম্পনি’র ‘সুরিনগরে’ মূল চরিত্রে অভিনয় করেছেন পরিচালক নিজে। আরও অভিনয় করেছেন তরুণ-প্রবীণ একঝাঁক তারকা। তাদের মধ্যে রয়েছেন- নায়লা, ইফতি আহমেদ, নীপা, মিজানুর রহমান, কাজল দাস, পুলক হায়দার, ফয়সাল খান, মুন্সি রবিউল, আব্দুল হোসেন, প্রবীর, শিশির, সোহান, মালেক, তুহিন, মার্জান নিসা, বাপ্পী কাইয়ুম সিকদার, সুমন, উদয়ন বড় ুয়া, সায়েম, নাজাতসহ অনেকে।  ‘সুরিনগর’ দর্শকদের আগ্রহ কাড়বে একথা নিঃসন্দেহে বলা যায়। ছবির কাহিনী এবং অভিনেতা-অভিনেত্রীর পারফরমেন্স দর্শকদের অনেক আনন্দ দিবে। ছবিতে মিনহাজ কিবরিয়া পরিচালক হিসেবে যেমন দক্ষতার পরিচয় দিয়েছেন তেমনি অভিনেতা হিসেবে দেখিয়েছেন অসাধারণ দক্ষতা। পাশাপাশি ছবির লোকেশন ও ক্যামেরার কাজ বাড়তি আকর্ষণ হয়ে উঠেছে। সব মিলিয়ে ‘সুরিনগরে’ আছে অনেক চমক। যা দেখার জন্য হলে যেতে হবে সবাইকে।

দর্শক ছবিটি পছন্দ করবেন

মিনহাজ কিবরিয়া  পরিচালক, অভিনেতা

‘সুরিনগর’ নিয়ে আমি খুবই এক্সসাইডেড। পরিচালক এবং অভিনেতা হিসেবে নয় একজন দর্শক হিসেবে বলব ‘সুরিনগর’ অসাধারণ একটি সিনেমা হয়েছে। দর্শক খুবই পছন্দ করবেন। বিশেষ করে তরুণদের পছন্দের ছবি হয়ে উঠবে ‘সুরিনগর’। এই ছবিতে কাহিনীর টানটান উত্তেজনা আছে। সেই সাথে আছে কারিগরী উৎকর্ষতাও। ঢাকার বিভিন্ন লোকেশনের পাশাপাশি লন্ডনেও ছবির স্যুটিং হয়েছে। ফলে আন্তর্জাতিক একটা আবহ পাওয়া যাবে ছবিটিতে। ছবিতে অভিনেতা-অভিনেত্রীদের মধ্যে অনেকেই নতুন। কিন্তু তারা অসাধারণ অভিনয় করেছেন। আমি আশাবাদী ‘সুরিনগর’ বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে একটি পজিটিভ দৃষ্টান্ত হয়ে উঠবে।  উলে­খ্য, ‘সুরিনগরে’ মিনহাজ কিবরিয়া পরিচালনার পাশপাশি মূল চরিত্রে অভিনয়ও করেছেন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, পরিচালক হিসেবে বলব অভিনেতা মিনহাজ খুব ভালো করেছে।

সুরিনগর:গল্প সংক্ষেপ

SuriNagarPromo_03SuriNagarPromo_01মানুষ যখন পৃথিবীতে আসে তখন তার মধ্যে যে মানবিক গুণাবলী থাকে নানা কারনে তা ক্রমেই হারিয়ে যায়। সে যেনো ক্রমেই অন্য মানুষ হয়ে ওঠে। এরকমই একটি গল্পের ছবি সুরিনগর। সুরিনগর শহরে বেড়ে ওঠে একটি হৃদয়বান ছেলের গল্প। নিজের নীতি নৈতিকতায় সবসময় অটুট থাকে ছেলেটি। কোনো অন্যায় কাজ যেনো তাকে স্পর্শ করতে পারেনা কখনোই। ছেলেটি এক সময় চাকরি জীবনে প্রবেশ করে। কর্মস্থলে যোগ দেবার পর তার বসকে দেখে নিজের নীতিরোধের সঙ্গে মিলাতে পারে না। বসের কাজকর্ম ভিন্ন জগত নিয়ে। SuriNagarPromo_02ছেলেটিকে দিয়ে নানান ধরনের অপরাধ জগতের কাজ করাতে থাকে। কিন্তু ছেলেটিকে দিয়ে যে এসব কাজ করানো হচ্ছে সেটা সে কোনোভাবেই জানতে পারে না। ছেলেটির মা এক সময় অসুস্থ হয়। তার চিকিৎসার জন্য অনেক টাকার প্রয়োজন হয়। তাই বসের কাছে গিয়ে টাকা চাইলে জুড়ে দেয় একটি শর্ত। বসের মেয়েকে বিয়ে করার শর্তে টাকা পায় ছেলেটি।  মাকে বাঁচানোর জন্য শর্তে রাজি হয় সে। কিন্তু মাকে সে কোনো ভাবেই বাঁচাতে পারে না। ওদিকে শর্ত অনুযায়ী নিজের জীবন চলে যায় অন্ধকার এক জগতে। ক্রমেই সেই অন্ধকার জগতের রাজা হয়ে যায় ছেলেটি। কিন্তু এক সময় ভেতরের সেই ভালো মানুষটিকে আবিষ্কার করে সে। ঘটনাচক্রে একসময় ছেলেটির সঙ্গে দেখা হয় সত্যিকারের ভালোবাসার মানুষের সাথে। এক সময় ছেলেটির সেই মানুষটির সঙ্গে সত্যিকারের ভালোবাসার সম্পর্ক ছিলো। কিন্তু অপরাধ জগতের শর্ত অনুযায়ী বিয়ে সংসার সবকিছু মিলে ছেলেটি যেনো কোথায় হারিয়ে যেতে থাকে। শেষ পর্যন্ত কী হয় ছেলেটির জীবনে। অন্ধকার জগতেই হারিয়ে যায়, নাকি ভালো মানুষটি ভালোবাসার মানুষকে নিয়ে আবার জীবন শুরু করে? তা জানতে হলে অবশ্যই দেখতে হবে সুরিনগর।

একটি আরজি!

রেজানুর রহমান, প্রযোজক

যারা দেশকে ভালোবাসেন, যারা দেশের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যকে সমৃদ্ধ করতে চান, তাদের প্রতি আমার একটি আরজি আছে। বিশেষ করে যারা দেশীয় চলচ্চিত্রের মঙ্গল চান, যারা চান আমাদের সিনেমা আবার স্বগৌরবে মাথা উঁচু করে দাঁড়াক তাদের প্রতি ভরসা রেখেই আরজি প্রকাশ করার আগে একটি সুখবর দিতে চাই। সুখবরটি হলো আনন্দ আলো প্রাতিষ্ঠানিকভাবে ছবি প্রযোজনায় এগিয়ে এসেছে। ‘সুরিনগর’ আনন্দ আলো প্রযোজিত প্রথম ছবি। পরিচালনা করেছেন একজন তরুণ মেধাবী নির্মাতা মিনহাজ কিবরিয়া। প্রিয় পাঠক, ছবিটি দেখার জন্য আপনাদেরকে হলে যেতে অনুরোধ করছি। এটাই আমার আরজি। প্রশ্ন উঠতে পারে কি আছে ‘সুরিনগরে’? কেন দর্শক হলে যাবেন ছবিটি দেখতে। বিনয়ের সাথে বলতে চাইÐ ‘সুরিনগর’ অনেক ভালো একটি ছবি হয়েছে। পরিচালক মিনহাজ কিবরিয়া যুক্তরাজ্যে টিভি মিডিয়ায় অসাধারণ কিছু কাজ করেছেন। ‘সুরিনগর’ তার প্রথম ফিচার ফিল্ম। কিন্তু প্রথম ফিল্মেই তিনি অসাধারণ দক্ষতার পরিচয় দিয়েছেন। মূল চরিত্রে তিনি অভিনয়ও করেছেন। আমাদের বিশ্বাস ‘সুরিনগর’ আপনাদের ভালো লাগবে। কাজেই চলুন না একবার হলে যাই। ‘সুরিনগর’ দেখে আসি।  ও হ্যাঁ, প্রিয় দর্শকÐ ‘সুরিনগর’ দেখার পর আপনার প্রতিক্রিয়া পাঠান আনন্দ আলোয়। গুরুত্বের সাথে তা ছাপা হবে।  বাংলা সিনেমার জয় হোক।

 সুরিনগরের জন্য শুভকামনা

Raju-Bhuiyaরাজু ভ‚ঁইয়া, ব্যবস্থাপনা পরিচালক, ভ‚ঁইয়া গ্র“প

সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকেই আমরা ‘সুরিনগর’ ছবিতে যুক্ত হয়েছি। বেশ কিছুদিন ধরেই চলচ্চিত্র থেকে মানুষ এক প্রকার বিমুখ। আমরা চাই দর্শকরা যেনো প্রেক্ষাগৃহে আসেন এবং দেশের চলচ্চিত্রের সেই স্বর্নালী দিন ফিরে আসে। তাই তো সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকেই চলচ্চিত্র পৃষ্ঠপোষকতার জন্য এগিয়ে আসা। সামনেও এমনিভাবে সুস্থ ধারার বিনোদনমূলক চলচ্চিত্রে সম্পৃক্ত হওয়ার ইচ্ছা রয়েছে। সুরিনগরের জন্য শুভ কামনা।

সুরিনগর তেমনই একটি ছবি

Jakaria-Sahid-(3)জাকারিয়া শাহীদ, ব্যবস্থাপনা পরিচালক, এডিসন গ্র“প (সিম্ফনি)

চলচ্চিত্র দেশ, সমাজ, প্রকৃতি তথা ইতিবাচক সমাজ নির্মাণ ব্যবস্থায় অবদান রাখে। তাই চলচ্চিত্র নির্মাণ ব্যবস্থার সাথে সিম্ফনি যুক্ত হয়েছে। এটা আমাদের সামাজিক দায়বদ্ধতাও। সুস্থ ধারার চলচ্চিত্র অবশ্যই চেতনার কথা বলে, জাগরণের কথা বলে, সচেতনতার কথা বলে। ‘সুরিনগর’ তেমনি একটি ছবি। শুভ কামনা সুরিনগরের জন্য।  সুরিনগর তেমনই একটি ছবি  Ðজাকারিয়া শাহীদ, ব্যবস্থাপনা পরিচালক, এডিসন গ্র“প (সিম্ফনি) চলচ্চিত্র দেশ, সমাজ, প্রকৃতি তথা ইতিবাচক সমাজ নির্মাণ ব্যবস্থায় অবদান রাখে। তাই চলচ্চিত্র নির্মাণ ব্যবস্থার সাথে সিম্ফনি যুক্ত হয়েছে। এটা আমাদের সামাজিক দায়বদ্ধতাও। সুস্থ ধারার চলচ্চিত্র অবশ্যই চেতনার কথা বলে, জাগরণের কথা বলে, সচেতনতার কথা বলে। ‘সুরিনগর’ তেমনি একটি ছবি। শুভ কামনা সুরিনগরের জন্য।

 ইফতির  আশাবাদ

SuriNagarPromo_05সুরিনগরে ইফতি আহমেদ নামে একজন প্রবাসী বাঙ্গালী অভিনেতা অভিনয় করেছেন। তিনি এর আগে হলিউড, বলিউডের পাশাপাশি একাধিক বৃটিশ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। বাংলাদেশে সুরিনগর তার প্রথম ছবি। ইফতি বলেন, সুরিনগরের ব্যাপারে আমি দারুন আশাবাদী। দর্শক ছবিটি পছন্দ করবেন।