সিনেমা

সিনেমা

1338
SHARE
sona-bondhu

আসছে তায়েবের সোনাবন্ধু

৬ জানুয়ারি ২০১৭ মুক্তি পাচ্ছে এই সময়ের জনপ্রিয় অভিনেতা ডিএ তায়েব অভিনীত সোনাবন্ধু সিনেমা। ইতোমধ্যে সিনেমাটি নিয়ে বিভিন্ন মহলে আগ্রহ তৈরি হয়েছে। এই ছবির মাধ্যমে ডিএ তায়েবের বড় পর্দার নায়ক হিসেবে অভিষেক হচ্ছে। অভিনেতা ডিএ তায়েব বলেন, আসলে ছবিটির পরিচালক ও প্রযোজক আমাকে প্রস্তাব দিয়েছিলেন সোনাবন্ধু নামে তারা একটি সিনেমা বানাবেন সেখানে আমাকে নায়ক হিসেবে দেখতে চান। আমি গল্প শুনে রাজি হয়ে গেলাম। ছবিটি গ্রাম্য প্রেমকে কেন্দ্র করে নির্মিত হয়েছে। ছবির নায়িকার চরিত্রে অভিনয় করেছেন পপি, পরীমণি ও মিমো। ছবিটির নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। দৃশ্য ধারণ করা হয়েছে টাঙ্গাইলের বিভিন্ন লোকেশনে। ছবিটি পরিচালনা করেছেন জাহাঙ্গীর আলম সুমন। প্রযোজনা করেছেন তপন কুমার বসাক। আরও অভিনয় করেছেন আনোয়ারা বর্দা মিঠু, ঝুনা চৌধুরী, সুমন মাহমুদ, নয়ন দেব, মতিউর রহমান, মুক্তা এঞ্জেল প্রমুখ। ডিএ তায়েব বলেন, সোনাবন্ধু আমার প্রথম ছবি। সিনেমাটি দর্শকদের ভালো লাগবে। আশা করি বাণিজ্যিকভাবেও ছবিটি ভালো ব্যবসা করবে।

শবনমের বান্ধবীরা…

ষাট ও সত্তর দশকের সাড়া জাগানো নায়িকা শবনম। স্বামী রবিন ঘোষকে হারিয়ে বেশ একাকিত্বে জীবনযাপন করছেন। এক প্রকার নিভৃতেই থাকছেন। মিডিয়ার কারও সঙ্গে কোনো যোগাযোগ নেই। মিডিয়ার সঙ্গে কথাও বলেন না। একমাত্র ছেলে রনি ঘোষ মায়ের পাশে থাকেন সবসময়ই। প্রিয়তম স্বামীকে হারিয়ে নিজেকে বেশ একাই মনে করেন বরেণ্য এ তারকা। নানা কাজ নিয়ে ছেলেকে ব্যস্ত থাকতে হয়। ফলে ছেলের সঙ্গে খুব একটা সময় কাটানো হয় না।  তাই সময়গুলো ভালো করে কাটাতে রোজ সকালেই পার্কে হাঁটার উদ্দেশ্যে বেরিয়ে পড়েন। সেখানে একই বয়সের বেশ কয়েকজন নারী সঙ্গী জুটেছে তার। তাদের সঙ্গে বেশ ভালোই বন্ধুত্ব হয়েছে। ওই বন্ধুদের নিয়েই একাকিত্ব ভাঙতে ঢাকার অদূরে কোথাও বেড়াতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এ তারকা।

নতুন নেতা আমজাদ হোসেন ও মিশা সওদাগর !

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির কার্যনির্বাহী পরিষদের মেয়াদ এ বছরের ডিসেম্বরে শেষ হয়ে যাবে। সেই সঙ্গে নতুন কার্যনির্বাহী পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে বিশিষ্ট চলচ্চিত্র পরিচালক আমজাদ হোসেন সভাপতি পদে নির্বাচন করবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন সেই সঙ্গে বর্তমান মেয়াদের মহাসচিব মুশফিকুর রহমান গুলজার, বর্তমান সহ সভাপতি সোহানুর রহমান সোহান সভাপতি পদে নির্বাচন করবেন বলে জানা গেছে। আমজাদ হোসেনের মহাসচিব হিসেবে জাকির হোসেন রাজুর নাম শোনা যাচ্ছে।

এদিকে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির বর্তমান কার্যনির্বাহী পরিষদের মেয়াদ শেষ হবে ২০১৭ সালে ফেব্রুয়ারি মাসে। মেয়াদ শেষ হওয়ার তিন মাসের মধ্যে নির্বাচন হতে হবে। এবারের শিল্পী সমিতির নির্বাচনে সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার ঘোষণা দিয়েছেন ভিলেন অভিনেতা মিশা সওদাগর। গত বারের মেয়াদে মিশা সমিতির সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচনে দাঁড়িয়েছিলেন কিন্তু মাত্র কয়েক ভোটের ব্যবধানে অভিনেতা অমিত হাসানের কাছে হেরে যান।

মেয়ের আগ্রহে এক সাথে ৫ সিনেমা

dipjolমাস খানেকের মধ্যে ডিপজল নতুন সিনেমার শুটিং করতে যাচ্ছেন। তবে এর পেছনে যিনি সবচেয়ে বড় ভূমিকা পালন করেছেন, তিনি হচ্ছেন তার মেয়ে আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন মেকআপ আর্টিস্ট ওলিজা মনোয়ার। সম্প্রতি তিনি দেশে ফিরেছেন এবং দেশেই একটি আন্তর্জাতিক মানের মেকআপ স্টুডিও খোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। ইতোমধ্যে মহাখালিস্থ ডিওএইচএস-এ স্টুডিওর কাজ শেষ করে এনেছেন। স্পেশাল ইফেক্টস মেকআপসহ সব ধরনের মেকআপের উপর তিনি ইংল্যান্ডে দীর্ঘদিন প্রশিক্ষণ নিয়েছেন এবং বিশ্বখ্যাত প্যারিস ফ্যাশন শো’র অফিসিয়াল মেকআপ আর্টিস্টসহ অনেক আন্তর্জাতিক ফ্যাশন শো’র মেকআপ আর্টিস্ট হিসেবে কাজ করেন। দেশে ফিরেই ওলিজা সিদ্ধান্ত নেন তিনি চলচ্চিত্রের সঙ্গে নিজেকে যুক্ত করবেন। নেপথ্যে থেকে কাজ করবেন। আর শুরুটা করবেন পিতা ডিপজলকেই দিয়েই। নিজেই দুটি গল্প লিখে বাবাকে শুনিয়েছেন। মেয়ের গল্প শুনে বাবাও মুগ্ধ। মেয়ের গল্পের দুই সিনেমার পাশাপাশি নিজের গল্পের আরও তিন সিনেমা নির্মাণের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। মোট পাঁচটি সিনেমা একটির পর একটি শুটিং শুরু করবেন বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

ডিপজল জানান, আমার একমাত্র মেয়ে মেঘলাই (ওলিজার ডাকনাম) আমাকে অনেকটা টেনে নামিয়েছে। তার উৎসাহ, আগ্রহ ও প্রেরণায় আমিও উদ্বুদ্ধ হয়েছি। ঠিক করলাম, আর বসে থাকা যায় না। ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহেই একসঙ্গে পাঁচ সিনেমার কাজ শুরু করব। আমি তো থাকছিই, অন্যান্য আর্টিস্টের তালিকাটা এখনই বলতে চাচ্ছি না। তবে নতুনদের প্রাধান্য থাকবে। দর্শকের জন্য একটু চমক রাখতে চাই।

শেষ হইয়াও হইল না শেষ

একটি দৃশ্য ও একটি গান বাকি। সেসব শেষ না করেই ‘আমার প্রেম আমার প্রিয়া’ ছবির কাজ সমাপ্তির ঘোষণা দিলেন পরিচালক শামীমুল ইসলাম। কারণ হিসেবে পরিচালক বললেন, ‘নায়িকা পরীমনির কারণেই ছবির সমাপ্তি ঘোষণা দিতে বাধ্য হয়েছি। ২০১৫ সালের মার্চ থেকে শুরু হয়েছিল ‘আমার প্রেম আমার প্রিয়া’ ছবির শুটিং। মাঝে পার হলো- প্রায় দুই বছর। এর আগে লিখিত সিডিউল দিয়েও পরীমনি চলে গিয়েছিলেন ভারতে ‘রক্ত’ ছবিতে কাজ করতে। পরিচালক জানান, একদিন শুটিং ফেঁসে গেলে লোকসান হয় প্রায় এক লাখ টাকা। এমন করলে তো সিনেমা প্রযোজনায় সহজেই কেউ আসবেন না।

ফাতড়া টাইপের সিনেমা আর করবো না

Shakib-khanবছরে অনেক ছবি না করে বুঝে-শুনে চার-পাঁচটি ছবিতে কাজ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন শাকিব খান। তিনি বলেন, আমি বুঝে-শুনে সামনের কাজগুলো করতে চাই। দরকার হলে ঘরে ছয় মাস বসে থাকবো তবুও ফাতড়া টাইপের সিনেমা করবো না আর। টেকনোলজিকে মাইনাস করলে তো আর সিনেমা হবে না। এখনকার অনেক ছবিতেই তেমনটা হচ্ছে। শুধু পরিচালক নন, একজন ভালো মেকআপম্যান, ড্রেসম্যান, টেকনিশিয়ানসহ পুরো টিম থাকলেই সেটা যথার্থভাবে সিনেমা হয়। ‘আয়নাবাজি’ ও ‘শিকারি’ তার প্রমাণ। ‘আয়নাবাজি’ ছবি কেন মানুষ পছন্দ করেছেন তার অনেক কারণ রয়েছে। তাদের প্রি ও পোস্ট প্রোডাকশন এবং নির্মাণ সব কাজই ছিল গোছানো। মেকাপম্যান মুম্বাই থেকে এনেছেন, কাহিনিটা ভালো, মেধাবী চিত্রগ্রাহক রাশেদ জামান পুরো ঢাকাকে সুন্দর করে তার ক্যামেরায় তুলে ধরেছেন। সবকিছু মিলে ছবিটি ভালো হয়েছে। পাশাপাশি আমার অভিনীত ‘শিকারি’ ছবিটি দর্শক পছন্দ করছেন। তাই ভাবছি যেন-তেন টাইপের ছবি আর করবো না। কারণ, এই ধরনের ছবি হতে থাকলে ইন্ডাস্ট্রি আরো ডুববে। এসব ছবি দিয়ে এই ইন্ডাস্ট্রির ভালো কিছু হবে না। সত্যি বলতে কী, চাপাবাজি দিয়ে ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি এগুবে না। অমিতাভ রেজা একজন মেধাবী লোক। নতুন করে তার মেধার পরিচয় দেয়ার কিছু নেই। এ ধরনের মেধাবী নির্মাতা আমাদের ইন্ডাস্ট্রিতে আরো প্রয়োজন। প্ল্যানিং ছাড়া কোনো ছবি নির্মাণ করাই ঠিক না। ভালোবাসা দিবস, পহেলা বৈশাখ, ঈদ এভাবে টার্গেট করে ছবির কাজ সামনে করবো।

সম্প্রতি শাকিব খান হাসিবুর রেজা কল্লোলের ‘সত্তা’ ছবির কাজ শেষ করেছেন। এ ছবিতে তার বিপরীতে অভিনয় করেছেন ভারতের অভিনেত্রী পাওলি ধাম। বর্তমানে এ ছবির ডাবিং চলছে। এছাড়া বুলবুল বিশ্বাসের ‘রাজনীতি’, কালাম কায়সারের ‘মা’, আবদুল মান্নানের ‘পাঙ্কু জামাই’ ছবির কাজগুলোও শেষ করছেন শাকিব। চলতি মাসে জাজ মাল্টিমিডিয়া ও এসকে মুভিজের নতুন ছবি ভ্যালেন্টাইনডেতে কাজ করতে ভারতে যাচ্ছেন তিনি। আসছে নতুন বছরের ভালোবাসা দিবসে এ ছবিটি মুক্তি পাবে। এ ছবিতে শাকিবের বিপরীতে অভিনয় করবেন কলকাতার জনপ্রিয় নায়িকা শুভশ্রী। এ ছবিটি নিয়ে শাকিব খান বলেন, দর্শকের জন্য ভালোবাসা দিবসে এটা হবে আমার বিশেষ উপহার ।

দি স্পাই অনন্ত জলিল

jalilএকটা সময় অনন্ত জলিল আমাদের চলচ্চিত্র জগতের তারকা নায়কদের পেছনে ফেলে এগিয়ে গিয়েছিলেন প্রথম সারিতে। টেলিভিশন, সিনেমা ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তিনি ছিলেন সরব। গত ৬ মাস ধরে অনন্ত জলিল শোবিজ জগৎ  থেকে অলিখিতভাবে অনুপস্থিত রয়েছেন। কারণ ব্যবসায়িক ব্যস্ততা। এব্যাপারে তিনি বলেন, চলচ্চিত্রে অভিনয়, প্রযোজনা ও পরিচালনা করতে গিয়ে গত কয়েক বছরে আমার ব্যবসা দারুণ ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ব্যবসায়িক ক্ষতি পুষিয়ে নিতে বেশ কিছু সময় সিনেমা থেকে দূরে ছিলাম। আমার ভক্তদের ডাকে আবার সরব হচ্ছি বছরের শেষ সময়ে। জানা যায়, অনন্ত জলিল ‘দি স্পাই’ নামে যে ছবির ঘোষণা দিয়েছিলেন ছয়মাস আগে সেই ছবিটি শুরু করতে যাচ্ছেন ডিসেম্বর মাসে। ছবির পাত্র-পাত্রী নির্বাচন করেছেন মোবাইল অপারেটর রবির সঙ্গে ট্যালেন্ট হান্টের মাধ্যমে। নির্বাচিতদেরকে নাচ, গান, ফাইটিং ও অভিনয়ে গ্রুমিং করিয়েছেন প্রশিক্ষকদের মাধ্যমে। ‘দি স্পাই’ ছবিতে অনন্ত জলিল তার স্ত্রী বর্ষা এবং তাদের একমাত্র সন্তানও অভিনয় করবেন।

ছবির নাম শেষকথা

অহিদুজ্জামান ডায়মন্ড পরিচালিত ‘বাষ্পস্নান’ ছবির নাম বদলে রাখা হলো ‘শেষ কথা’। নতুন বছরের জানুয়ারি অথবা ফেব্রুয়ারিতে এটি মুক্তি পাবে বলে নিশ্চিত করেছেন তিনি। নাম পরিবর্তন প্রসঙ্গে জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত পরিচালক ডায়মন্ড বললেন, অনেকের মন্তব্য, বাষ্পস্নান নামটি কঠিন হয়ে যায়। এর অর্থ দুর্বোধ্য মনে হচ্ছে কারও কারও কাছে। তাই নামটা যেন পরিবর্তন করি। সবশ্রেণির কাছে সহজবোধ্য রাখতেই ‘শেষ কথা’ রেখেছি।

‘শেষ কথা’য় অভিনয় করেছেন কলকাতার সমদর্শী দত্ত, আইরিন, হিমন, প্রকৃতি, মামুনুর রশীদ, রাইসুল ইসলাম আসাদ, আব্দুর রশিদ, নাহার, জোবাইদা লিপি, সাবরিনা, উপমা, হিরা চৌধুরী প্রমুখ। ছবির চিত্রায়ন হয়েছে রাজশাহীতে। এর আগে সৈয়দ অহিদুজ্জামান ডায়মন্ড পরিচালনা করেন ‘নাচোলের রানী’, ‘গঙ্গাযাত্রা’ ও ‘অন্তর্ধান’ ছবি তিনটি। এর মধ্যে ‘গঙ্গাযাত্রা’ আটটি বিভাগে ও জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পায়।