সিনেমা

সিনেমা

1413
0
SHARE

শুভেচ্ছাদূত নুসরাত ফারিয়া

এখন থেকে স্মার্টফোনের প্রচারণাও করবেন বাংলাদেশি চলচ্চিত্রের আলোচিত নায়িকা নুসরাত ফারিয়া। সম্প্রতি তিনি একটি অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন হুয়াওয়ের শুভেচ্ছাদূত নির্বাচিত হয়েছেন। প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে চুক্তিবদ্ধও হন। শুভেচ্ছাদূত হওয়ার অংশ হিসেবে নুসরাত ফারিয়া আগামী ছয় মাস হুয়াওয়ের ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন পি নাইনের ডিজিটাল প্রচারণায় কাজ করবেন। ফারিয়া বলেন, ব্র্যান্ড হুয়াওয়ের সঙ্গে কাজ করার সুযোগ পেয়ে আমি আনন্দিত। স্মার্টফোন বর্তমানে তরুণদের লাইফস্টাইলের একটা অংশ। রুচিশীল ও ফ্যাশনেবল স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের পছন্দের মডেল হুয়াওয়ে পি নাইনের সফলতার অংশ হতে পেরে আমি ব্যাপক উচ্ছ্বসিত। নুসরাত ফারিয়া অভিনীত মুক্তি পাওয়া শেষ ছবিটি ‘বাদশা: দ্য ডন’। সম্প্রতি তিনি চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন ‘ধ্যেতারিকি’ নামের নতুন একটি ছবিতে। এই ছবিতে তিনি আরিফিন শুভর বিপরীতে অভিনয় করবেন। নির্মাণ প্রক্রিয়া চলছে জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত ‘প্রেমী ও প্রেমী’ ছবির। এ ছবিতেও ফারিয়ার নায়ক আরিফিন শুভ।

নিরবের বালা

নায়ক নিরবের ‘বালা’ ছবির কাজ প্রায় শেষের পথে। ভারতের বিভিন্ন লোকেশনে হিন্দি ভাষায় নির্মিতব্য এই ছবির কাজ আশি ভাগ শেষ হয়েছে এরই মধ্যে। ১৬ সেপ্টেম্বর থেকে ভারতে বেঙ্গালুরুর লোকেশনে শুটিং শুরু হয় ছবিটির। পরিচালনা করছেন বলিউডের পরিচালক ফয়সল সাইফ। নিরব কর্নাটকের ক্যান্ডিতে শুটিং করেছেন। তিনি বলেন, আশি ভাগেরও বেশি কাজ শেষ হয়ে গেছে। বাকি কাজ শেষ হতে হয়তো ৩-৪ দিন সময় লাগতে পারে। শুটিং শেষে দেশে ফিরেছেন।

কেমন হয়েছে কাজ জানতে চাইলে নিরব বলেন, এখানকার কাজের গতির সঙ্গে আমাদের কাজ মেলানো যাবে না। অসম্ভব ভালো কাজ হয়েছে। এঁদের কাজের পেশাদারির জায়গাটা অনেক উঁচুতে। শুটিংয়ের সময় হিন্দিতে সংলাপ দিতে সমস্যা হয়েছে কি না- এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, একটু তো সমস্যা হয়েছে। আমি তো হিন্দিতে অভ্যস্ত নই। মাস দুয়েক অনুশীলন করে যতটুকু শিখেছি। নিরব জানান, শুটিংয়ের ফাঁকে চার-পাঁচজন মিলে আড্ডা দেয়ার সময় ভাষা বুঝতে সমস্যা হচ্ছে না। কিন্তু শুটিংয়ে সহশিল্পীর সঙ্গে সংলাপ ডেলিভারী দেয়ার সময় কিছুটা সমস্যা হচ্ছে বলে জানান। ছবিটিতে নিরবের বিপরীতে অভিনয় করছেন ভারতের কবিতা। আরও অভিনয় করছেন মিরা খান, আমিতা নানগিয়া, আসিফ বাসরা, তাসমিয়া প্রমুখ।

কবির স্বপ্ন এবং এক লাখ টাকা!

Pori-moniকবিতাকুঞ্জের পাশে দাঁড়াতে পেরে পরীমনিও উচ্ছ্বসিত। তিনি বলেন, কবিতা ও কবির প্রতি আমার অন্যরকম ভালো লাগা কাজ করে। অর্থকষ্টে কবির স্বপ্ন সার্থক হবে না, এ আমি মানতেই পারছিলাম না। তাই নিজের সামর্থ্য অনুযায়ী এ কাজে অর্থ সাহায্য দেয়ার সিদ্ধান্ত নিই এবং কবির সঙ্গে যোগাযোগ করি। এতে একরকম প্রশানিৱ আছে। নায়িকার সাহায্য পেয়ে অভিভূত কবি নির্মলেন্দু গুণ। পরীমনিকে উদ্দেশ্য করে ফেসবুকে তিনি লিখেছেন, তুমি আমাদের নির্মাণাধীন কবিতাকুঞ্জের সাহায্যে হাত প্রসারিত করেছ, এ জন্য আমি খুবই খুশি হয়েছি। অন্তরে আনন্দ লাভ করেছি। তুমি মনে হচ্ছে নিজেও কবিতা লেখো, তাই কবিতাকুঞ্জের প্রতি তোমার মায়া পড়েছে। নির্মলেন্দু গুণ বলেন, আমরা অর্থসংকটে আছি। তাই অর্থসাহায্য চেয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছিলাম। মনে হচ্ছে, ওই স্ট্যাটাসটি পরীমনির চোখে পড়েছে। অনেকে যথাসাধ্য সাহায্য পাঠিয়েছেন। কিন্তু নায়ক-নায়িকা বা গায়ক-গায়িকাদের মধ্যে পরীমনিই প্রথম কবিতাকুঞ্জের জন্য সাহায্যের হাত প্রসারিত করল। তার জন্য দোয়া করছি। অভিনয় জীবনে সে নিশ্চয় আরও অনেক বড় সাফল্য লাভ করবে।

নির্মলেন্দু গুণ আরও জানান, পরীমনির সঙ্গে ফোনে আমার কথা হয়েছে। সে অত্যন্ত বিনয়ের সঙ্গে জানিয়েছে, শুটিং নিয়ে ব্যস্ত থাকায় আমার সঙ্গে কথা বলতে পারেনি। আমার বিকাশ নম্বরে এক দিনে ২৫ হাজার টাকার বেশি পাঠানো যায় না বলে সে আমার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে এক লাখ টাকা পাঠাতে চায়। আমি তাঁকে   ব্যাংক অ্যাকাউন্ট পাঠিয়ে দিয়েছি এবং কবিতাকুঞ্জের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানিয়ে তাঁর ইনবক্সে নির্মাণাধীন কবিতাকুঞ্জের বেশ কিছু ছবি পাঠিয়েছি। ধন্যবাদ পরীমনি, আমরাও তোমার পাশে আছি।

অনলাইন পোর্টালের বিরুদ্ধে শাকিব

Shakib-Khanদুই দিন পরপর নতুন ছবিতে চুক্তি। অমুক নায়িকা থাকলে অভিনয় করবেন না। নতুন নায়িকা বাদ দিয়ে পুরোনো নায়িকাকে কাছে টেনে নিচ্ছেন শাকিব। ঢালিউড নায়ক শাকিব খানকে জড়িয়ে হরহামেশাই এই ধরনের খবর প্রকাশ করছে কিছু নিউজ পোর্টাল এবং বরাত দিচ্ছে ‘বিশ্বস্ত সূত্র’-এর। এইসব পোর্টালের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে এবার তথ্যমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ করবেন শাকিব খান।

সম্প্রতি কয়েকটি অনলাইন পত্রিকায় ‘বুবলী আউট অপু ইন’ শিরোনামে বিশ্বস্ত সূত্রের বরাত দিয়ে প্রকাশিত হয় একটি খবর। তাতে লেখা হয়েছে, চারটি ছবি থেকে বুবলীকে বাদ দিয়েছেন শাকিব খান। নতুন কোনো ছবিতে বুবলীকে না নেয়ারও পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। এ ধরনের খবরে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেছেন শাকিব। এসব খবরকে ‘আজগুবি’ আখ্যা দিয়েছেন তিনি। শাকিব খান বলেন, ‘আমি তো ঈদের পর একটা ছবিতেও চুক্তিবদ্ধ হইনি। আবার আমি নাকি চারটি ছবি থেকে বুবলীকে বাদ দিয়েছি। এসব কী ধরনের খবর? তারা কোত্থেকে পেল এসব বানোয়াট তথ্য? কী উদ্দেশ্য এসব খবর লেখা সাংবাদিকদের? এসব অনলাইন পোর্টালের? হিট বাড়ানোর জন্যই, নাকি অন্য কোনো খারাপ উদ্দেশ্য আছে তাদের?

এসব অনলাইন পোর্টাল ও সেগুলোর সাংবাদিকদের নীতি-নৈতিকতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন এই তারকা। তিনি বলেন, যাকে নিয়ে একটি সংবাদ পরিবেশন করা হবে, তার সঙ্গে তো কথা বলতে হবে। তার মতামত জানতে হবে। তা না করে বিশ্বস্ত সূত্রের বরাত দিয়ে যে-কারও বিরুদ্ধে যা খুশি তা-ই লিখে দিতে হবে, এটা কোনো ধরনের সাংবাদিকতা? আর সেই ‘বিশ্বস্ত সূত্র’ কে বা কারা? খবরে তাদের নামটা প্রকাশ করা হোক।

শাকিব জানান, শুধু তিনিই নন, সমাজের নানা পেশার সম্মানিত ব্যক্তিদের নিয়েও প্রায়ই এ ধরনের বানোয়াট, ভিত্তিহীন খবর প্রকাশ করছে ওই সব পোর্টাল। শাকিব মনে করেন, এই পোর্টালগুলোর কোনো জবাবদিহিতা নেই। সে জন্যই এসব বিভ্রানিৱকর খবর লেখার সাহস পাচ্ছে। এ ব্যাপারে তথ্যমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে তিনি বলেন, তথ্যমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ জানাচ্ছি যে, পোর্টালগুলো কোনো তথ্যপ্রমাণ ছাড়াই প্রতিনিয়ত এ ধরনের মিথ্যা, বানোয়াট খবর প্রকাশ করে যাচ্ছে, মনিটরিংয়ের মাধ্যমে সেগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে।

পরীমনি ও ইয়াশ রোহানের স্বপ্নজাল

swopnojaalসাম্প্রতিক সময়ে কোমল পানীয় কোকের একটি বিজ্ঞাপন যারা টিভি পর্দায় দেখেছেন তারা নিশ্চয় চিনে থাকবেন ইয়াশ রোহানকে। এক হারা গড়নের ইয়াশ বিজ্ঞাপন ও টিভি নাটকে ভালো পারফর্ম করে সবার নজর কেড়েছেন। এবার ইয়াশ অভিনয় করছেন গিয়াস উদ্দিন সেলিম পরিচালিত স্বপ্নজাল ছবিতে নায়ক চরিত্রে। ছবির প্রথম লটের কাজ শেষ হয়েছে। দ্বিতীয় লটের কাজ শুরু হয়েছে ২৬ অক্টোবর থেকে ভারতের কলকাতায়। কলকাতার পর আবার দেশে চাঁদপুরে শুরু হবে ছবির তৃতীয় লটের কাজ। ইয়াশের বিপরীতে এছবিতে অভিনয় করছেন হালের আলোচিত নায়িকা পরীমনি। নায়ক হিসেবে ইয়াশের প্রথম ছবি হলেও এছবি নিয়ে বেশ রোমাঞ্চিত পরীমনি। তিনি বলেন, ছবির এ পর্যন্ত যতটুকু কাজ হয়েছে ততটুকু নিয়েই আমি রোমাঞ্চিত। এই পচিালকের হাতেই নির্মিত হয়েছে বহুল আলোচিত ও ব্যবসাসফল ছবি মনপুরা। ছবিটি মনপুরাকে ছুতে পারবে কিনা জানিনা। তবে যতটুকু শুটিং হয়েছে তাতে প্রত্যাশা রাখতেই পারি। স্বপ্নজাল ছবিতে ইয়াশ ও তার মা শিল্পী সরকার অপুও অভিনয় করছেন। অনেকেই হয়তো জানেন না শিল্পী সরকার অপু ও সাংবাদিক নাট্যকার নরেশ ভূইয়া দম্পতির পুত্র ইয়াশ রোহান। এ ছাড়াও ছবিতে অভিনয় করছেন মিশা সওদাগর, ফজলুর রহমান বাবু, ফারহানা মিঠু, ইরেশ যাকের, শাহেদ আলী, সজয় প্রমূখ।

২৩ ডিসেম্বর এক পৃথিবী প্রেম

তিনবার মুক্তির তারিখ পিছিয়েছে এস এ হক অলিকের ‘এক পৃথিবী প্রেম’ ছবিটি। সর্বশেষ ২১ অক্টোবর ছবিটির মুক্তির দিন চূড়ান্ত হয়েছিল। কিন্তু এই তারিখে মুক্তি দেয়া সম্ভব হয়নি। আগামী ২৩ ডিসেম্বর ছবিটির মুক্তির সম্ভাব্য দিন নির্ধারণ করেছেন ছবির পরিচালক। ছবি মুক্তি পিছিয়ে দেয়ার ব্যাপারে এস এ হক অলিক বলেন, আমার শুভাকাঙক্ষী, সিনেমা হল মালিক, বুকিং এজেন্ট ও প্রযোজকদের অনুরোধক্রমেই ছবিটির মুক্তির তারিখ পেছাতে হচ্ছে। তবে মুক্তি পিছিয়ে দেয়ার ব্যাপারে ‘আয়নাবাজি’ ছবিটিকেও সামনে এনেছেন এই পরিচালক। তিনি বলেন, ‘আয়নাবাজি’ দর্শকদের প্রেক্ষাগৃহে আনতে পেরেছে। হল মালিক ও বুকিং এজেন্টদের বেশ কয়েকজন ‘এক পৃথিবী প্রেম’ ছবিটিও দেখেছেন। তাঁদের ধারণা, এই ছবিটিও দেখতে হলে আসবেন দর্শকরা। তাই একসঙ্গে এরকম দুটি ছবি প্রদর্শিত হলে দুটি ছবিই ব্যবসায়িকভাবে ক্ষতির মুখে পড়তে পারে। ‘এক পৃথিবী প্রেম’ ছবিটিতে প্রধান দুটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন আইরিন ও আসিফ নূর। আরও অভিনয় করেছেন হাসান ইমাম, আবুল হায়াত, এটিএম শামসুজ্জামান, আমিরুল হক চৌধুরী, শর্মিলী আহমেদ প্রমুখ।

সিনেমায় আগ্রহী সুজানা

Sujana-Jaforসম্প্রতি ঢাকার একটি সিনেপ্লেক্সে অমিতাভ রেজা পরিচালিত ‘আয়নাবাজি’ ছবিটি দেখতে গিয়েছিলেন সুজানা। ছবি দেখার পর তিনি বলেন, আমি অনেক দিন ধরে বাংলা সিনেমায় অভিনয়ের প্রস্তাব পাচ্ছি। কিন্তু কেমন গল্পে আমি কাজ করতে চাই, তা কোনো পরিচালককেই আজ পর্যন্ত বোঝাতে পারিনি। এখন অন্তত বলতে পারব, ‘আয়নাবাজি’র মতো সিনেমা বানান, আমি অভিনয় করতে একপায়ে রাজি আছি। আমি মনে মনে এমনই একটি সিনেমায় কাজ করতে চেয়েছি বললেন সুজানা। সুজানা আরো বলেন, আমাদের দেশের সিনেমা হলে হলিউডের ছবিই বেশি দেখা হয়। শেষ কবে আমার দেশের কোন ছবি দেখে এতটা মুগ্ধ হয়েছি, তা আমার মনে পড়ছে না। ‘আয়নাবাজি’ ছবিটি দেখার পর সিনেমায় অভিনয় করার ইচ্ছা আরও বেড়ে গেল। ‘আয়নাবাজি’র মতো একটা পরিকল্পিত গল্পের ছবি হলেই হবে। এই একটি ছবিই একজন শিল্পীকে অনেক দিন বাঁচিয়ে রাখার জন্য যথেষ্ট। আর চঞ্চল ভাই তো দারুণ অভিনয় করেছেন। এদিকে সুজানা অমিতাভ রেজার পরিচালনায় নতুন দুটি বিজ্ঞাপনচিত্রে কাজ শুরু করতে যাচ্ছেন। এর মধ্য দিয়ে দীর্ঘ ছয় বছর পর অমিতাভ রেজার নির্দেশনায় কাজ করতে যাচ্ছেন সুজানা। এই বিজ্ঞাপনচিত্রে সুজানার সহশিল্পী নির্মাতা আশফাক নিপুণ।