শোকের পংতিমালা

শোকের পংতিমালা

1286
SHARE

গত এক মাসের ব্যবধানে সাংস্কৃতিক অঙ্গনের বিশেষ করে চলচ্চিত্রের বেশ ক’জন কৃতি শিল্পী ও নির্মাতা মৃত্যুবরণ করেছেন। তাদের মধ্যে আছেন স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত গীতিকবি নয়ীম গওর, বিশিষ্ট চলচ্চিত্র অভিনেতা আদিল, অভিনেতা চাঁদ প্রবাসী, অভিনেত্রী নাগমা। ২ অক্টোবর মৃত্যু বরণ করেন আনন্দ আলোর সুহৃদ, জনপ্রিয় চলচ্চিত্র সাংবাদিক ও দৈনিক মানবজমিনের সিনিয়ার প্রতিবেদক মোহাম্মদ আওলাদ হোসেন।

অভিনেতা আদিল

adilবিশিষ্ট চলচ্চিত্র অভিনেতা ও মুক্তিযোদ্ধা আদিল আর নেই। গত ৪ অক্টোবর দিনগত রাত ১২টা ৩০ মিনিটে নারায়ণগঞ্জের চাষারায় নিজ বাসভবনে ইন্তেকাল করেছেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭০ বছর। আদিল ১৯৭২ সালে অভিনেতা নির্মাতা হাসমত পরিচালিত ‘এখানে আকাশ নীল’ ছবির মাধ্যমে অভিনয় জীবন শুরু করেন। এ পর্যন্ত আদিল প্রায় দুই’শ ছবিতে অভিনয় করেছেন। দু’একটি ছবিতে নায়ক চরিত্রে অভিনয় করলেও বেশির ছবিতে দুর্দান্ত ভিলেন চরিত্রে অভিনয় করেছেন। এর মধ্যে আছে বারুদ, বন্দুক, বুলবুল এ বাগদাদ, ইমান, চন্দ্রলেখা, মোকাবেলা, তাজ তলোয়ার, সওদাগর নেপালী মেয়েসহ অসংখ্য ছবি। মৃত্যুকালে এই অভিনেতা স্ত্রী নাসিমা আক্তার মুন, মেয়ে মুনিয়া ও ছেলে বাবু রাইয়ানসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছে।

নয়ীম গহর

noem-gohorস্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত গীতিকবি নয়ীম গহর গত ৬ অক্টোবর মৃত্যুবরণ করেছেন (ইন্না নিল্লাহ ওয়া ইন্নাইলাহি রাজেউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯৩ বছর। তিনি দীর্ঘদিন ধরে বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন। জন্ম আমার ধন্য হলো মাগো, নোঙ্গর তোলো তোলো কালজয়ী গানের গীতিকবি নয়ীম গহর বাংলাদেশ টেলিভিশনের জনপ্রিয় ম্যাগাজিন যদি কিছু মনে না করেন  এর সূচনা সংগীত রচনা করেন। নয়ীম গহর ২০১২ সালে দেশের সর্বোচ্চ রাষ্টীয় সম্মাননা ‘স্বাধীনতা পদক পেয়েছেন।

চাঁদ প্রবাসী

chad-probashiচলচ্চিত্র ও টিভি নাটকের প্রবীন অভিনেতা চাঁদ প্রবাসী ২৭ সেপ্টেম্বর মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর। দীর্ঘদিন ধরে চাঁদ প্রবাসী বাধঁক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন। ১৯৬৫ সাল থেকে চাঁদ প্রবাসী বাংলাদেশ বেতারের সঙ্গে যুক্ত হন। ঢাকা বেতারের গ্রামীণ শ্রোতাদের আমার দেশ অনুষ্ঠানে রুস্তম আলী চরিত্রে পারফর্ম করে জনপ্রিয়তা লাভ করেন। চলচ্চিত্র ও টিভি নাটকেও একসময় চাঁদ প্রবাসী দাপিয়ে বেড়াতেন। শুধু সিরিয়াস নয় কৌতুক অভিনেতা হিসেবেও জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন চাঁদ প্রবাসী। তিনি শুধু ঢাকার ছবিতে নয় পি মবঙ্গের ছবিতেও অভিনয় করেছেন।

চলে গেলেন নাগমা

গত ২৮ সেপ্টেম্বর হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন চলচ্চিত্র অভিনেত্রী নাগমা। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৪০ বছর। নাগমার পুরো নাম সালমা আক্তার লিনা। তিনি চলচ্চিত্রে খলনায়িকা চরিত্রে অভিনয় করে খ্যাতি পেয়েছিলেন। তার অভিনীত ছবির মধ্যে আছে স্বামী কেন আসামী, মেয়েরাও মানুষ, আখেরী হবার, সাহেব নামে গোলাম, আসামী গ্রেফতার, খুনের বদলা, শক্তির লড়াই, ডাইনী বুড়ি, বিষে ভরা নাগিন। মৃত্যুকালে তিনি এক কন্যা সন্তান রেখে গেছেন।