মানব কল্যাণের বারতা নিয়ে হাজার কণ্ঠে বর্ষবরণ

মানব কল্যাণের বারতা নিয়ে হাজার কণ্ঠে বর্ষবরণ

651
SHARE

মানব কল্যাণ ও মঙ্গলময় জীবনের আহবান জানিয়ে ঐতিহ্যবাহী বর্ষবরণ অনুষ্ঠান উদযাপিত হলো হাজারো কণ্ঠে। ‘সানসিল্ক হাজারও কণ্ঠে কোটি বাঙালির বর্ষবরণ-১৪২৩’ ঢাকার বঙ্গবন্ধু আনত্মর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র প্রাঙ্গণে বিগত বছর গুলোর ধারাবাহিকতায় চ্যানেল আই ও সুরেরধারা যৌথভাবে আয়োজন করে। এ উৎসবের প্রধান পৃষ্ঠপোষক ছিল ইউনিলিভার ব্র্যান্ড সানসিল্ক। পহেলা বৈশাখ সুর্যোদয়ের সাথে সাথে এক হাজার শিল্পীর কণ্ঠে বর্ষবরণের গান পরিবেশনের মধ্য দিয়ে শুরু হয় মূল অনুষ্ঠান। সার্বিক তত্বাবধানে ছিলেন প্রখ্যাত রবীন্দ্র সঙ্গীতশিল্পী রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা। সেতার ও বাঁশির সুর মূর্চ্ছনায় সূর্যোদয়ের আগেই বিভিন্ন বয়সী এক হাজার শিল্পী অনুষ্ঠানের মূলমঞ্চে প্রবেশ করে। স্বাগত বক্তব্য রাখেন চ্যানেল আই এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর, পরিচালক ও বার্তাপ্রধান শাইখ সিরাজ ও সুরের ধারার সভাপতি রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা। সুর্যোদয়ের সাথে সাথে ওঠো ওঠো রে… এই সঙ্গীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে শুরু হয় বর্ষবরণের মূল অনুষ্ঠান। এরপর সমবেত কণ্ঠে পরিবেশিত হয় বর্ষবরণের বিভিন্ন গান। আবৃত্তি করেন বিশিষ্ট অভিনেতা সৈয়দ হাসান ইমাম ও আফজাল হোসেন। একক সঙ্গীত পরিবেশন করেন বিশিষ্ট সঙ্গীত শিল্পী রফিকুল আলম, শাহীন সামাদ, রথীন্দ্রনাথ রায়, তপন মাহমুদ, আজিজুর রহমান, কোনাল, চ্যানেল আই এর রিয়েলিটি শো বাংলার গানের শিল্পীসহ চ্যানেল আই সেরাকণ্ঠের শিল্পীরা। পরিবেশিত হয় দলীয় নৃত্য ও বৈশাখের বিভিন্ন সামগ্রী উপস্থাপনের মাধ্যমে ফ্যাশন শো। বর্ষবরণ অনুষ্ঠান দেখতে আসেন বেসাময়িক বিমান চলাচল ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন, ঢাকা দক্ষিণ সিটি মেয়র সাঈদ খোকন ও স্থানীয় সংসদ সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পৃষ্ঠপোষক ইউনিলিভারের ব্র্যান্ড বিল্ডিং ডিরেক্টর জাভেদ আকতার-সহ দেশি বিদেশী বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। অনুষ্ঠানের শেষভাগে মঞ্চ মাতান এল আর বি ও আইয়ূব বাচ্চু। বাংলাদেশে চ্যানেল আই ও ভারতে জি বাংলা অনুষ্ঠানটি সরাসরি সম্প্রচার করে।

এর আগে ১৩ এপ্রিল একই স্থানে সুর্যাসেত্মর সঙ্গে সঙ্গে সুরেরধারার আয়োজনে পালিত হয় চৈত্রসংক্রানিত্ম উৎসব। এ উৎসবে প্রধান অতিথি ছিলেন ড. আনিসুজ্জামান। তিনি বলেন- বাংলা নববর্ষের ঐতিহ্য ও আনন্দ মূলতঃ গ্রামগঞ্জেই বেশী হয়। সেই আনন্দ শহরবাসির মাঝেও ছড়িয়ে পড়েছে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা ড. গহর রিজভী, চ্যানেল আই এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর-সহ বিশিষ্টজনেরা। এবারের বর্ষবিদায়ের বিষয়বসত্মু ছিল নাটকের গান। বর্ষবরণস্থলে ছিলো বৈশাখী মেলার স্টল। পিঠা-পুলি, মাটির তৈরি তৈজসপত্র, বেত, বাঁশ পিতল, পাট-পাটজাত দ্রব্যের নানা জিনিসপত্রসহ রকমারি ও ঐতিহ্যসমৃদ্ধ নানা পণ্যে সুসজ্জিত ছিলো মেলার স্টলগুলো। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন আমীরুল ইসলাম ও শহিদুল আলম সাচ্চু। উপস্থাপনায় ছিলেন অপু মাহফুজ ও মৌসুমী বড়ুয়া।