ভালোবাসা বুঝবেন কি করে

ভালোবাসা বুঝবেন কি করে

SHARE

আশিক: কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ভাষায়, তোমরা যে বল ভালোবাসা ভালোবাসা/ সখি ভালোবাসা কারে কয়, কিংবা আমার জীবনে তুমি বাঁচো ওগো বাঁচো, তোমার কামনা আমার চিত্ত দিয়ে যাঁচো…। কবির এমন আবেগ, উপমায় ভালোবাসা জেগে উঠে। প্রিয় মানুষের মুখটি ভেসে ওঠে চোখের আয়নায়। কতো ঝড়, কতো বৃষ্টি আসে। রাত শেষে ভোর হয়। তবুও ভালোবাসার চোখ খোলা থাকে প্রিয় মানুষের জন্য। এমন করে ফিরে আসে ভালোবাসা দিবস। বিশেষ দিন। এদিনে মেতে উঠে ভালোবাসার কাপল। কেউ আশা বাধে, মিলন হবে কতো দিনে। কেউ ভালোবাসার স্বপ্ন ফেরি করে গেয়ে ওঠে গান- ভালোবাসবো বাসবোরে বন্ধু তোমায় যতনে। আমার মনের ঘরে চান্দের আলো চুঁইয়া চুঁইয়া পড়ে।

গানের ভাষায় ভালোবাসা বুঝি সহজ করে হয়। চোখ যে মনের কথা বলে, চোখে চোখ রাখা শুধু নয়। এভাবেই গানের কথার মতো, চোখ দিয়ে বুঝি ভালোবাসার শুরুটা হয়, এমনটাই ভাবেন অনেকে। চোখ দিয়ে অন্য চোখের ভাষায় ভালোবাসা বুঝতে পারেন কেউ কেউ। প্রথমে চোখে চোখ পড়ে। তারপর যেন গানে গানে শুরু হয় মন লেনদেন।  প্রথমত আমি তোমাকে চাই, দ্বিতীয়ত আমি তোমাকে চাই, শেষ পর্যনত্ম আমি তোমাকে চাই। এভাবেই দুটি হৃদয় পূর্ণতায় পায় ভালোবাসার সাধনায়।

প্রশংসা থেকেও ভালোবাসা শুরু হয়। যেমন আপনার হাসি বা কথা বলার স্টাইল কারো মন ছঁ্‌ুয়ে গেল। তিনি আপনাকে জানালেন, আপনার হাসিটি অনেক সুন্দর। খুব মিষ্টি করে হাসতে পারেন আপনি। কিংবা বললেন, আপনি অনেক স্টাইল করে গুছিয়ে কথা বলতে পারেন। এতে আপনি বুঝে নিতে পারেন, যিনি আপনার প্রশংসা করলেন, তিনি আপনাকে অনেক ভালোবাসেন। শুরুটা এভাবেই হয়ে যায়। প্রশংসা থেকে কাছাকাছি আসা, মনের অনুভূতি শেয়ার করা। তারপর প্রতিটি দিন কেউ কাউকে না দেখে থাকতে পারেন না। ব্যসত্মতার মাঝে মন পড়ে থাকে প্রিয় মানুষের মনের ভেতর। এ নিয়ে গানও আছে, জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী হাবিব গেয়েছেন, আমি তোমার মনের ভেতর একবার ঘুরে আসতে চাই, আমায় কতোটা ভালোবাসো সেই কথাটি জানতে চাই। চমৎকার গানটির মতো করে প্রেমিক তার প্রেমিকার ভালোবাসা বুঝে নেয়। দূর থেকে কাছে আসে। প্রথমে আপনি ডাকাডাকি, তারপর তুমি, তুই বলতে বলতে এভাবেই ভালোবাসা বুঝবেন ভালোভাবে শুরু হয়ে গেছে আপনার মনের জগতে।

গিফট বা উপহার দেওয়া থেকেও ভালোবাসা শুরু হয়। গানের ভাষায় বলতে হয়, জন্মদিনে কি আর দেবো তোমায় উপহার, বাংলায় না ভালোবাসা হিন্দিতে না পেয়্যার। যেমন আপনি আপনার পছন্দের কোন মানুষকে তার জন্মদিনে গিফট করলেন তার প্রিয় কোন সামগ্রী। এতে করে তার হৃদয় মোমের মতো গলে যাবে আপনার কাছে। ভাবতে থাকবেন, আমাকে অনেক ভালোবেসে উপহার দিয়েছে। আপনার প্রতি তার মায়া, আবেগ, অনুভূতি বেড়ে যাবে। এতে আপনিও বুঝে নিতে পারেন, এবার বুঝি ভালোবাসার মানুষ পেয়ে গেলাম।

ফেসবুক, ইন্টারনেট, টুইটার থেকেও আজকাল ভালোবাসা শুরু হয়ে যায়। প্রথমে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠালেন। হাই হ্যালো করে প্রতিদিন চ্যাটিং করেন। প্রিয় মানুষের খোঁজ খবর নেন। এতে করে দু’জন দু’জনকে আপন ভাবতে শুরু করেন। একদিন ফেসবুকে চ্যাটিং না হলে যেন দিনটাই মাটি হয়ে যায়। গানের ভাষায় বলা যায়, একদিন তোমাকে না দেখলে বড় কষ্ট হয়, সেই দিনটাই যেন আমার বন্ধু নষ্ট হয়, বড় কষ্ট হয়…। গানটির কথার মতো করে এভাবেই টানটান অনুভব দু’জনার ভেতরে তোলে তোলপাড়। অল্প অল্প করে ভালোবাসার গল্প এভাবেই শুরু হয়।