ভালো পরিচালকের সাথে ভালো প্রযোজকও জরুরি : জাকিয়া বারী মম

ভালো পরিচালকের সাথে ভালো প্রযোজকও জরুরি : জাকিয়া বারী মম

1773
0
SHARE

খন্ড ও ধারাবাহিক নাটকের শুটিং নিয়ে ব্যস্ত রয়েছেন অভিনেত্রী জাকিয়া বারী মম।  কয়েক মাস আগেও চলচ্চিত্রের শুটিংয়ের কারনে টিভি নাটকে তেমনভাবে অভিনয় করতে পারেননি লাক্স চ্যানেল আই সুপারস্টার।  তবে বর্তমানে টিভি নাটক নিয়েই তার ব্যস্ততা বেশি।  কথা হলো মম’র সঙ্গে-

আনন্দ আলো: বর্তমানে ব্যস্ততা কী নিয়ে?

মম: ‘ঘুড়ি তুমি কার আকাশে উড়ো’ শিরোনামের একটি টেলিছবিতে কাজ করেছি।  এতে আমার বিপরীতে অভিনয় করেছেন ইমন।  এছাড়াও মেজবাহ শিকদারের ‘শেষ বেলার কাব্য’ শিরোনামের একটি খন্ড নাটকে অভিনয় করেছি।  আরো কয়েকটির কাজ শেষ করলাম।  আসছে ভালোবাসা দিবসে আশা করি দর্শকরা আমাকে ভিন্নভাবে দেখবে।

আনন্দ আলো: টিভি নাটক দেখেন?

মম: হ্যাঁ।  তবে শুটিং থাকলে তো দেখা হয় না।  কোনো ভালো প্রোডাকশনের কথা শুনলেই সেটা ইউ টিউবে দেখে নেই।  আর শুটিং না থাকলে কিংবা কখনো বাসায় তাড়াতাড়ি ফেরা হলে টিভিতে নাটক দেখি।  নিজের কাজের পাশাপাশি অন্যের কাজও দেখি।

আনন্দ আলো: এখন কী তাহলে টিভি নাটকেই ব্যস্ততা বেশি?

মম: হ্যাঁ এটা বলা যায়।  চলচ্চিত্রে আপাতত কাজ করা হচ্ছে না।  বেশ কয়েকটি ছবি নিয়ে কথাবার্তা হয়েছে। তবে ব্যাটে বলে মিলেনি।  আমি আসলে আস্তে আস্তে এগিয়ে যেতে চাই।  রাতারাতি একাধিক ছবি সাইন করতে চাই না।  ভালো পরিচালক ও ভালো চরিত্র পেলে ছবিতে কাজ করব।  বেশকিছু নতুন ছবি নিয়ে কথা চলছে।  দেখা যাক কী হয়।

আনন্দ আলো: বর্তমানে চলচ্চিত্রের পরিবেশ আপনার কাছে কেমন মনে হয়?

মম: দেখুন, চলচ্চিত্র একটি শিল্প।  এখানে এককভাবে কেউ চাইলেই কিছু করে ফেলতে পারে না।  এজন্য প্রয়োজন সমন্বিত উদ্যোগ।  ভালো পরিচালকের সঙ্গে ভালো গল্প, শিল্পী ও প্রযোজক থাকতে হবে।  ভালো ছবি হলে সিনেমা হলে অবশ্যই দর্শক আসবে।  আর আগের চাইতে এখনকার পরিবেশ অনেক ভালো বলেই মনে হয়।

চিটাগাং ভাইকিংস-এর মিডিয়া অ্যাম্বাসেডর চ্যানেল আই

Chittagong-Vhikingবাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ-বিপিএল এর তৃতীয় আসরে চ্যানেল আইকে মিডিয়া অ্যাম্বাসেডর করেছে চিটাগং ভাইকিংস।  এ উপলক্ষে সম্প্রতি চ্যানেল আই ভবনে একটি সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।  ‘চাটগাইয়া পোয়া মাটিত পড়লে লোয়া’ এমন একটা কথা প্রচলিত রয়েছে।  এ কথাকে ধরেই বিপিএল এ দল গঠন করেছে চিটাগাং ভাইকিংস।  দলটির স্বত্ত্বাধিকারী প্রতিষ্ঠান ডিবিএল গ্রুপ।  এ প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চ্যানেল আই প্রেজেন্টস চিটাগাং ভাইকিংস হিসেবে প্রতিটি খেলাসহ সবধরনের প্রচারণায় থাকবে চ্যানেল আই।  এ প্রসঙ্গে ডিবিএল গ্রুপের চেয়ারম্যান আব্দুল ওয়াহেদ বলেন, ঐতিহ্যবাহী চিটাগংয়ের ক্রিকেট নিয়ে এবার আমরা হাজির হয়েছি বিপিএল-এ।  আমরা সঙ্গে পেয়েছি চ্যানেল আইকে।  ডিবিএল ও চ্যানেল আই পরিবারের দল হবে চিটাগাং ভাইকিংস।  ডিবিএল গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল রহিম বলেন, মাঠে পুরো টুর্নামেন্ট আমরা এনজয় করব।  চট্টগ্রাম ভাইকিংসের টিম উপদেষ্টা সাবেক ক্রিকেটার আকরাম খান বলেন, এবার লটারীর মাধ্যমে দল নির্বাচন করা হয়েছে।  আমরা একটা ব্যালেন্সড দল পেয়েছি।  ইমপ্রেস টেলিফিল্ম ও চ্যানেল আইয়ের ব্যবস্হাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর বলেন, খেলাধুলার সঙ্গে সব সময়ই ছিল চ্যানেল আই।  এবার বিপিএল এ চিটাগাং ভাইকিংসের সঙ্গে যুক্ত হয়ে সারা বিশ্বে পৌঁছে যাবে চ্যানেল আই।  চ্যানেল আইয়ের পরিচালক ও বার্তা প্রধান শাইখ সিরাজ বলেন, বাংলাদেশের ক্রিকেট অনেক এগিয়েছে।  বিপিএল এর মাধ্যমে খেলোয়াড়রা নিজেদেরকে বিশ্বের কাছে আরো ভালোভাবে তুলে ধরবে।  অনুষ্ঠানে আরো উপস্হিত ছিলেন, ডিবিএল গ্রুপের ব্যবস্হাপনা পরিচালক এম এ জব্বার, পরিচালক হাসান ইমাম, এলআরবির আইয়ূব বাচ্চু, মাত্রার স্বত্ত্বাধিকারী সানাউল আরেফিন প্রমুখ।  চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানটি সরাসরি সম্প্রচার করেছে চ্যানেল আই।

আরটিভিতে খেয়া

kheyaaআরটিভিতে প্রচার শুরু হয়েছে ধারাবাহিক নাটক ‘খেয়া’।  আনিসুল হকের রচনা ও সকাল আহমেদের পরিচালনায় নাটকটি প্রচার হচ্ছে আরটিভিতে প্রতি সোম, মঙ্গল ও বুধবার রাত ৮.২৯ মিেিনট।  এ ধারাবাহিকে অভিনয় করেছেন রাইসুল ইসলাম আসাদ, ওয়াহিদা মলিহ্মক জলি, আল-মুনসুর, আফরান নিশো, তিশা , শর্মিলী আহম্মেদ এস, এম, মোহসীন প্রমূখ।  নাটকে দেখা যাবে, ৫০ বছরবয়সী আবিদুর রশিদ একজন সাদামাটা ছাপোসা ভদ্রলোক।  এক ছেলে ও এক মেয়ে, স্ত্রী ও বৃদ্ধ মাকে নিয়ে ছিমছাম নিম্নধ্যবিত্ত পরিবার।  জীবনে চাওয়া-পাওয়া বলতে এখন তার ছেলে-মেয়ে।  পেশা বলতে, ভাগ্যক্রমে পেয়ে যাওয়া একটা দোকান, নাম পারাপার ষ্টোর।  এই একটি পরিবার ও দোকান নিয়েই ধারাবাহিক নাটক খেয়া।