বিয়ের সাজের আদ্যোপান্ত

বিয়ের সাজের আদ্যোপান্ত

3504
SHARE

Nishait-Adnan-tariqনিশাত আদনান তারিক: থিমভিত্তিক বিয়ের সাজ এখন বেশ জনপ্রিয়।  নির্দিষ্ট কোনো রঙের ওপর ভিত্তি করে বর-কনের পোশাকসহ বিয়ের সব অনুষ্ঠানের সাজসজ্জা বেশ আকর্ষণীয় করে তোলা সম্ভব।  বিয়ের সাজের ক্ষেত্রে দুই পরিবারের মতামত থাকাটা জরুরি।  বিয়ের সাজে কনের পোশাকের ধরনটাও গুরুত্বপূর্ণ।  শাড়ি দেখেও কনের বিয়ের সাজের বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যায়।  মূলত: তিনটি অনুষ্ঠানকে মাথায় রেখেই বিয়ের সাজে পরিবর্তন আসে।  গায়ে হলুদ, বিয়ে ও বৌভাতের সাজকে তিনটি ট্রেন্ডি, ফিউশন ও ট্র্যাডিশনে ভাগ করা যায়।  কনের একেক অনুষ্ঠানে একেক লুক দিতেই সাজে আনা হয় এই ভিন্নতা।  তিনটি লুকের মধ্যে ট্র্যাডিশন লুকে চোখের ওপর বেশি কাজ করা হয়।  ঠোঁট গাঢ় লাল করা হয়।  চুল ফুলিয়ে ট্র্র্যাডিশনাল করা হয়।  আর মডার্ন লুকে কনের সাজে স্মোকি ভাব ফুটিয়ে তোলা হয়।  যা এ সময়ের কনেদের বেশ পছন্দের।  কনের ফিউশন সাজে যাদের চোখ ছোট তাদের চোখের শেপে পরিবর্তন আনা হয়।  চোখ বড় করিয়ে দেখানো হয়।  তাই দেখতেও ভালো দেখায়।  এই সাজে ঠোঁটের সাজকেও বিশেষ গুরুত্ব দেয়া হয়।

বিয়ের সাজের আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ দিক হচ্ছে লাল রঙের ব্যবহার।  অর্থাৎ মেকআপে লালচে বাব রাকা।  কেননা ভালোবাসার সঙ্গে লাল রঙটি বিশেষভাবে জড়িত।  আগেরকার দিনে বিয়ের সাজে লাল শাড়ি, লাল লিপস্টিক ও লালটিপ ছাড়া বউয়ের সাজ ভাবাই যেত না।  দিন বদলেছে, বউ সাজে এসেছে অনেক রঙ।  তাই তো বর্তমানে অনেকেই ট্র্যাডিশনাল লুক থেকে অনুপ্রাণিত হচ্ছেন।  এজন্য আধুনিক বউ সাজে ট্রেডিশনাল এই লুক রাখা দরকার।  এছাড়াও মডার্ন ব্রাইডাল লুকে রেড কালারের জন্য চেহারায় দ্রুত শার্পনেস বের করে আনা যায়।  এ সাজে সাজতে হলে ত্বকের রঙের সঙ্গে মিলিয়ে কনসিলার লাগান চোখের নিচে, মুখের কালো দাগ বা ব্রণে।  ত্বকের রঙের সঙ্গে মিলিয়ে ফাউন্ডেশন দিন সারা মুখে।  এক শেড হালকা রঙের ফাউন্ডেশন দিন গালে, কপালের মাঝে, থুতনি ও নাকের ওপরের অংশে।  ডার্ক কালারড ফাউন্ডেশন দিয়ে কন্টোরিং করুন চিকবোন, নাকের দু’পাশ ও গালের যে কোনো ফোলা অংশ।  গালে লাগান ব্রাউন ব্লাশন।

চোখের সাজের ক্ষেত্রে প্রথমেই আইব্রো প্লাক করে নিন।  ব্রাইডাল সাজে উজ্জ্বলতা আনতে এটি খুবই জরুরি।  আইব্রো পেন্সিল দিয়ে সূক্ষ্ম রেখায় আইব্রো আঁকুন।  গ্রে ও ব্ল্যাক শ্যাডো লাগান।  আইব্রোর ঠিক নিচে হাইলাইট করুন গোল্ডেন আইশ্যাডো বা হাইলাইটার দিয়ে।  রেড আইশ্যাডো দিয়ে রাঙিয়ে নিন চোখের ওপরের পাতা।  ব্ল্যাক শ্যাডো দিন চোখের ভাঁজে ও বাইরের কোনায়।  চোখের ভেতরের কোনায় অল্প সিলভার আইশ্যাডো দিন।  কালো লিকুইড আইলাইনার দিয়ে মোটা রেখায় চোখ আঁকুন।  নিচের পাতায় মোটা রেখায় কাজল লাগান।  ঘন করে মাশকারা লাগান চোখের পাপড়িতে।  ব্রাইডাল লুকে লিপ প্রমিনেন্ট করতে রেড লিপলাইনার দিয়ে লিপ আঁকুন।  এরপর রেড লিপস্টিক দিন।

বিয়ের পোশাকের দিকেও রাখতে হবে আলাদা নজর।  কেননা বিয়েতে কনে সাজের বিভিন্ন শাড়ি, লেহেঙ্গা ইত্যাদিতে খুব একটা পার্থক্য খুঁজে পাওয়া যায় না।  তবে বিয়ের শাড়ি বা এর অনুষঙ্গ উজ্জ্বল রঙের হওয়া চাই।  কনের উজ্জ্বল পোশাকের সঙ্গে চাই একটুখানি আলতো মেকআপের ছোঁয়া।  তাই কনের সাজে মেকআপের জন্য ব্লাশন ও চোখের দিকে বিশেষ লক্ষ্য রাখতে হয়।  আইল্যাশ এবং কাজল অবশ্যই মুখের গড়নের সঙ্গে মানানসই করে ফুটিয়ে তুলতে হবে।

পার্লারে হলুদ, বিয়ে, বৌভাত আর পানচিনিসহ প্রতিটির ব্রাইডাল মেকআপ পৃথকভাবে বা প্যাকেজ হিসেবে করা যায়।  প্রথমে পানচিনি (বাগদান), তারপর গায়ে হলুদ, আক্‌দ, তারপর বিয়ে-বৌভাতের মেকআপ।  এক্ষেত্রে পুরনো ধরন কিছুটা বদলেছে।  এখন অনেক সময় বিয়ে-বৌভাত আলাদা না হয়ে দু’পক্ষ থেকে একটাই বিবাহোত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠান হচ্ছে।  এর সঙ্গে পানচিনি ও আক্‌দ’র অনুষ্ঠান একটু ঘটা করেই হোক কিংবা ঘরোয়া ধাঁচের, মেয়েরা সবটাতেই পার্লারে সাজাটাই পছন্দ করে।  সেক্ষেত্রে হলুদ, আক্‌দ বা বিবাহোত্তর সংবর্ধনায় পার্লারে তিনটি অনুষ্ঠানের জন্য যে মেকআপ প্যাকেজ আছে, তা নেয়া যেতে পারে।  তার সঙ্গে পার্লারে বিশেষভাবে পানচিনির যে কনেসাজ (এনগেজমেন্ট মেকআপ) আছে তাও করতে পারেন।  তবে ঘরোয়া পানচিনি, এমনকি আক্‌দ এই ব্রাইডাল সাজটি না চাইলে অনেকেই শুধু পার্টি মেকআপ করতে পারেন।

পছন্দ অনুযায়ী প্রতিটি অনুষ্ঠান আলাদা পার্লারে সাজতেই পারেন।  তবে একই পার্লারে সাজলে প্যাকেজে সাশ্রয় হবে।  কনের মুখমণ্ডলের গঠন-গড়ন বুঝে-শুনে একেক অনুষ্ঠানে একেক রকম মানানসই সাজ ও চুলের স্টাইল করা যায়।  এমনকি বিয়ে-পূর্ব পরামর্শ এবং তাকে গায়ে হলুদে কেমন ফুলের গয়নায় ভালো লাগবে, সে পরামর্শও দেয়া সম্ভব।

সাজ প্রস্তুতি

Ok-794A9278যতই ব্যস্ততা থাকুক বিয়ের অন্তত ১৫ দিন আগে থেকে পার্লারে বা ঘরোয়া উপায়ে রূপচর্চা শুরু করা উচিত।  পাশাপাশি কনের সাজকে অতুলনীয় ও প্রাণবন্ত করে তুলতে রূপসজ্জার সঙ্গে সঠিক ডায়েট করতে হবে।  বিয়ের প্রস্তুতিতে শুধু রূপ নয় ব্যক্তিত্বেরও যেন প্রতিফলন ঘটে সেদিকে দৃষ্টি দেয়া প্রয়োজন।  বিয়ের আগে প্রয়োজন ত্বকের সঠিক যত্ন।  তাই কনের সামনে থাকতে হবে একটি গাইডলাইন।  ত্বক এবং চুলের বাড়তি যত্ন এ সময় অতি জরুরি।

ত্বকের যত্ন: ত্বক পরিষ্কার, টান টান ভাব বজায় এবং উজ্জ্বলতা ধরে রাখতে ফেসিয়ালের কোনও বিকল্প নেই।  ত্বকের ধরন অনুযায়ী এর পরিচর্যায় ফেসিয়াল এক কার্যকর উপায়।  তাই বিয়ের দিনক্ষণ  ঠিক হলে ভালো কোনো পার্লারে গিয়ে দক্ষ হাতে ফেসিয়াল করে নিন।  ফেসিয়াল করতে হবে অন্তত ১ মাস আগে।  তারপর ১৫ দিন পর আবার ম্যাসাজ ও ব্লিচ করে নিন।  কারণ বিয়ের আগে স্বাভাবিকভাবেই নানা টেনশনের কারণে ত্বক তার স্বাভাবিক আর্দ্রতা হারায়।  এ কারণেই ত্বকের নিয়মিত যত্ন নিতে হবে।  আর ফেসিয়ালসহ নানা ধরনের ম্যাসাজ ত্বকের আর্দ্রতা ফিরিয়ে আনতে সাহায্য করে।  তবে শুধু পার্লারে গিয়ে ত্বকের যত্ন নিলেই হবে না, অবসর সময়ে ঘরে বসে ঘরোয়া পদ্ধতিতেও ত্বক পরিচর্যা করতে পারেন।  ত্বকের যত্নে আলু এবং শসার রস খুব উপকারী।  আলু এবং শসার রস একসঙ্গে মিশিয়ে ফ্রিজে রেখে বেশ কয়েকদিন পর্যন্ত সেটা ব্যবহার করতে পারেন।

চোখের উজ্জ্বলতা বাড়াতে: প্রতিদিন ৮ ঘণ্টা ঘুমাতে হবে।  এতে চোখের নিচের কালি দূর হবে।  শসা ও আলুর রস গোলাপজলে মিশিয়ে ফ্রিজে ঠাণ্ডা করে নিয়ে তুলায় ভিজিয়ে চোখে দিতে হবে।  এভাবে কিছুদিন মিশ্রণটি চোখে লাগালে চোখের উজ্জ্বলতা বাড়বে।  চোখের ফোলা ভাব দূর করতে চোখের কাছে আমন্ড তেল দিয়ে ম্যাসাজ করতে হবে।  পাকা কলা ও পেঁপে পাতলা করে কেটে চোখে দিয়ে রাখতে হবে।  এতে চোখের ফোলা ভাব কমবে।

মুখের দাগ দূর করতে: ব্রণের দাগ কমাতে নিম এবং চন্দন বাটা একসঙ্গে মেখে ত্বকে লাগাতে পারেন।  ত্বকে যদি পোড়া দাগ থাকে তবে মসুর ডালের গুঁড়ো, কাঁচা দুধ, আলুর রস পেস্ট করে মুখে লাগিয়ে রাখতে হবে।  ২০ মিনিট পর পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে নিন।  মুখে কালো ছোপ বা মেছতার দাগ দূর করতে হলে কাঁচা দুধ, তুলসীপাতার রস, ময়দা পেস্ট করে মুখে লাগিয়ে  ২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলতে হবে।

ঠোঁটের যত্ন: ঠোঁটের জন্য আমন্ড তেল, দুধের সর ও মধু মিশিয়ে লাগানো যেতে পারে।  ঘাড় ও পিঠের কালো ছোপ দূর করতে মসুর ডাল বাটা, দই এবং কয়েক ফোঁটা লেবুর রস মিশিয়ে ঘাড় ও পিঠে লাগিয়ে রাখতে হবে।  আধ ঘণ্টা পর আলতো করে ঘষে তুলে ফেলতে হবে।

হাত-পায়ের যত্ন: হাত-পা কোমল রাখতে ভ্যাসলিন ও গ্লিসারিন মিশিয়ে লাগাতে হবে।  হাত-পায়ের কালো ছোপ দূর করতে পাতিলেবুর রস ও চিনি মিশিয়ে লাগাতে পারেন।  এরপর পাতি লেবুর ছাল ঘষতে হবে যতক্ষণ না চিনি গলে যায়।  মাসে অন্তত দুবার মেনিকিওর ও পেডিকিওর করতে পারেন।

চুলের যত্ন: তেলের সঙ্গে জবাফুল এবং আমলকি দিয়ে ১০ মিনিট জ্বাল দিন।  তেল ঠাণ্ডা হলে ছেঁকে রেখে দিন।  এই তেল ব্যবহারে আপনার চুল পড়া বন্ধ হবে।  আর এই কয়েক দিনেই চুল হবে কোমল, মসৃণ।  এছাড়াও এক চা চামচ মধু ও যে কোনো ব্র্যান্ডের এক চা চামচ তেল একসঙ্গে মিশিয়ে তুলা দিয়ে মাথায় মাখুন।  এরপর শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে নিতে হবে।  চুল ভালো রাখতে নিয়মিত ভিটামিন ই ক্যাপসুল খাওয়া যেতে পারে।  যদি শুষ্ক ও রুক্ষ চুল হয় তবে এক কাপ মাঠা তোলা দুধে একটা ডিম ভালো করে ফেটিয়ে মাথার স্কাল্পে লাগাতে হবে।  ১০ মিনিট পর চুল ধুয়ে ফেলতে হবে।  তৈলাক্ত চুলের জন্য দুই মুঠ পুদিনা পাতা আধা গ্লাস পানিতে ফুটিয়ে মিশ্রণ তৈরি করে ২০ মিনিট ফোটাতে হবে।  এরপর ৩০০ গ্রাম শ্যাম্পুর সঙ্গে মিশিয়ে চুলে লাগিয়ে পরে চুল ধুয়ে ফেলতে হবে।  এছাড়াও পার্লারে গিয়ে এই কন্ডিশনিং ম্যাসাজ ও মেহেদি ট্রিটমেন্ট করা যেতে পারে।

খাওয়া-দাওয়া: খাবারের ক্ষেত্রে বেশি বেশি ভিটামিনযুক্ত খাবার যেমন ভিটামিন ‘এ’ ও ‘বি’ আছে এমন ধরনের খাবার খেতে হবে।  অতিরিক্ত পানি, শাকসবজি, দুধ, দই, পনির, টমেটো, গাজর খেতে হবে।  এগুলো ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াবে এবং চুলকে সুন্দর করবে।  ভাজাপোড়া যথাসম্ভব না খাওয়াই ভালো এ সময়।  প্রচুর পরিমাণে পানি, ফলের রস ও তাজা ফলমূল খেতে হবে।

চাপমুক্ত থাকুন: সারাক্ষণ মানসিক চাপ আমাদের শরীর, মন এবং ত্বকের ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলে।   মানসিক চাপমুক্ত থাকুন।  বিয়ের আগে এবং পরে আমাদের জীবনে বেশ বড় পরিবর্তন হয়।  তাই এই সময়টি পরিবারের সবার সঙ্গে উপভোগ করুন।

লেখক: বিউটি এক্সপার্ট ও স্বত্বাধিকারী, অরা বিউটি লাউঞ্জ

কোথায় সাজবেন

02_2এই সময় বিভিন্ন পার্লারে বিয়ের এক্সক্লুসিভ সব অফার দিচ্ছে।  কোনো পার্লার বিয়ের সাজের সঙ্গে পার্টি মেকআপ ফ্রি দিচ্ছে আবার কেউ দিচ্ছে স্পেশাল ডিসকাউন্ট কিংবা কেউ দিচ্ছে বিয়ের সব সাজের একসাথে অফার।

পারসোনা: বিয়ের মৌসুমে পারসোনা বিশেষ ব্রাইডাল প্যাকেজ দিচ্ছে।  এখানে কনে সাজের সঙ্গে যেকোনো একজনকে ফ্রি সাজিয়ে নেয়ার সুযোগ দিচ্ছে।  এছাড়া গ্রাহকের সুবিধার্থে থাকছে সাধ আর সাধ্যের মধ্যে ভিন্ন ভিন্ন ব্রাইডাল প্যাকেজ।  ঠিকানা: ধানমন্ডি-সুবাস্তু জেনিম প্লাজা, বাড়ি-৩৭ (নতুন), রোড-১৬ (নতুন), ধানমন্ডি, ঢাকা।  ফোন: ০১৭১৩১৪৮২০৬।  এছাড়া গুলশান, বনানী, শান্তিনগরে শাখা রয়েছে।

অরা বিউটি লাউঞ্জ: নগরীর বেইলী রোডে অবস্হিত অরা বিউটি লাউঞ্জ এনেছে নতুন সেবা।  তাদের নিয়মিত সেবার পাশাপাশি এক্সক্লুসিভ ব্রাইডাল প্যাকেজের সঙ্গে পার্টি মেকআপ ফ্রি দিচ্ছে।  এছাড়া বিয়ের এই মৌসুমে পার্লারটি তাদের গ্রাহকদের জন্য আরো নিয়ে এসেছে বিয়ের এনগেজমেন্ট, আক্‌দ, হলুদসহ বিভিন্ন প্যাকেজ সেবা।  অরা বিউটি লাউঞ্জের স্বত্বাধিকারী ও বিউটি এক্সপার্ট নিশাত আদনান তারিক জানান, ‘আমরা সবসময়ই সময় উপযোগী সব সেবা নিয়ে সৌন্দর্য সচেতন নারীদের সামনে উপস্হিত হই।  সেই ধারাবাহিকতায় বিয়ের এই মৌসুমে এক্সক্লুসিভ সব সাজ নিয়ে আমরা হাজির হয়েছি গ্রাহকদের সামনে।  বিয়ের বিভিন্ন ধাপে কখন কোন সাজটা হবে সেটা আমাদের আলাদভাবে করারও ব্যবস্হা রয়েছে। ’ ব্রাইডাল মেকআপ ছাড়াও অরাতে রয়েছে হেয়ার রিবন্ডিং, ব্রাইডাল মেহেদী, ব্রাইডাল ফেসিয়াল, গ্লো এন্ড শাইনিং ফেসিয়াল, পার্টি মেকআপ, ফেসিয়াল, মেনিকিওর-পেডিকিওর, হেয়ার কাটিং এন্ড স্টাইল, হেয়ার কালারিং, ফুট ম্যাসাজসহ রূপচর্চার আরো নানান সেবা।  উল্লেখ্য এই অফারটি চলবে ৩১ ডিসেম্বর ২০১৫ পর্যন্ত।  যোগাযোগ: গোল্ড প্যালেস (২য় তলা), ৩, নিউ বেইলী রোড, ঢাকা।  ফোন: ৯৩৩৩২৬৬, ০১৭৯৯-২৫৫৫৫৫।  ওয়েবসাইট: ষষষ.টলরটঠঢ.ডমব ফেসবুক: ষষষ.তটডণঠমমপ.ডমব/ টলরটঠণটর্লহঠঢ

ওমেন্স ওয়ার্ল্ড: ব্রাইডাল মেকওভারের বিশেষ অফার দিচ্ছে ওমেন্স ওয়ার্ল্ড।  এই বিয়ের মৌসুমে ব্রাইডদের জন্য দিচ্ছে অভূতপূর্ব আকর্ষণীয় শীতকালীন ব্রাইডাল প্যাকেজ।  মাত্র আট হাজার টাকা থেকে শুরু, আর তাই আপনি সাধ ও সাধ্যের মধ্যে বেছে নিতে পারবেন পছন্দ অনুযায়ী বিয়ের আগের যত্ন ও সাজের প্যাকেজ।  বিভিন্ন প্যাকেজে কনের সঙ্গে একজনের পার্টি মেকআপ ও চুলসেট পাবেন সম্পূর্ণ ফ্রি।  যোগাযোগ: গুলশান: ০১৭৩৩২২৬১৫১, বনানী: ০১৭৩৩২২৬১৫২, উত্তরা: ০১৭৩৩২২৬১৫৩, কাকরাইল: ০১৭৩৩২২৬১৫৪, ধানমন্ডি: ০১৭৩৩২২৬১৫৫ এবং মিরপুর: ০১৭৩৩২২৬১৫৬।

ফারজানা শাকিল’স মেকওভার সেলুন: বিয়ের এ মৌসুমে ব্রাইডদের জন্য বিশেষ ডিসকাউন্ট দিচ্ছে ফারজানা শাকিল’স মেকওভার সেলুন।  বিয়েল সাজ সর্বোচ্চ ১০-২০ হাজার টাকা এবং সর্বনিম্ন ৪-৮ হাজার টাকা পর্যন্ত।   যোগাযোগ: ধানমন্ডি শাখা, ৮৩, সাতমসজিদ রোড, মোবাইল: ০১৭৩৩-২২৬২১৩।

মিউনি’স ব্রাইডাল: বিয়ের কাস্টমারদের জন্য মিউনিস ব্রাইডালে রয়েছে আকর্ষণীয় অফার।  অফারগুলো হলো- ব্রাইডাল মেকআপ, ব্রাইডাল মেহেদি, গোল্ড ফেসিয়াল, মেনিকিউর-পেডিকিউর, হেয়ার ট্রিটমেন্ট, ওয়াক্সিং এবং থ্রেডিং প্যাকেজ মাত্র ৯৯৯৯ টাকা।  ব্রাইডাল মেকআপ (২ দিন): প্রিটি মেকআপ-১ জন, গোল্ড ফেসিয়াল, মেনিকিউর-পেডিকিউর, হেয়ার ট্রিটমেন্ট, ওয়াক্সিং, থ্রেডিং-প্যাকেজ মাত্র ১৬,০০০ টাকা।  সেইসাথে রয়েছে দুইটি পার্টি মেকআপের করলে একটি পার্টি মেকআপ ফ্রি এবং তিনটি পার্টি মেকআপের সাথে একটি ফেসিয়াল ও চুলের সাজ ফ্রি।  যোগাযোগ: মিউনি’স ব্রাইডাল, ধানমন্ডি: হোসেইন প্লাজা (৪র্থতলা), রোড-২৮ ধানমন্ডি, ঢাকা, ফোন :০১৭৪৬-১৭৭২৩৩, ০১৯২১-৫৪৫৫৯৯, উত্তরা: প্লট-৩, গরিবে নেওয়াজ এভিনিউ, সেক্টর-১১, উত্তরা, ঢাকা, ফোন: ০১৭০৩-৪৩২০৯৯, ০১৯১০-০৬২৯৩৯।

আকাঙখার্স গ্ল্যামার ওয়ার্ল্ড: বিয়ের এ মৌসুমে আকাঙখার্স গ্ল্যামার ওয়ার্ল্ড দিচ্ছে নানান ধরনের ব্রাইডাল প্যাকেজ।  যোগাযোগ- প্রধান কার্যালয়- ৩৭৫ ডিআইটি রোড, পূর্ব রামপুরা (টিভি সেন্টারের দক্ষিণ পাশে), মোবাইল: ০১৯৩৭-৫১৩০০৬।

OK-794A7481রেড বিউটি স্যালুন: ঢাকার বনানী ৭ নং রোডে অবস্হিত রেড বিউটি স্যালুনের কর্ণধার আফরোজা কামালের কাছে ব্রাইডাল মেকআপ শুরু ১৮০০০ থেকে।  তাছাড়া রেডের পার্টি মেকআপ ১০০০-৪০০০ এর মধ্যে রয়েছে।  ব্রাইডাল মেকআপ ৮০০০-১৫০০০ এর ভেতরে।  ঠিকানা: বাড়ি৩৯, রোড ৭, ব্লক- জি, বনানী, ঢাকা-১২১৩ যোগাযোগ: ৯৮৭২২৯৩।

জাবিদ আক্তার খান মেকওভার: গুলশান নিকেতনে অবস্হিত জাবিদ আক্তার খান মেকওভার এখন বেশ পরিচিত সবার কাছে।  জাবিদ আক্তার খান নিজেই কনে সাজিয়ে থাকেন।  কনে সাজাতে খরচ পরবে ৮,০০০ টাকা থেকে ২০,০০০ টাকা পর্যন্ত।  সাজ যতটা ভারি হবে খরচটাও ততটা বাড়বে।  ঠিকানা: নিকেতন, গুলশান, ঢাকা।  যোগাযোগঃ ০১৯২২২২২৭৫০।

প্রিয়াঙ্কাস অ্যারোমা থেরাপি: বিয়ে উপলক্ষে বেশ কয়েকটি প্যাকেজ এনেছে প্রিয়াঙ্কাস অ্যারোমা থেরাপি।  পার্লারটিতে ব্রাইডাল সাজালে ১টি পার্টি মেকআপ ফ্রি।  ব্রাইডালের জন্য রয়েছে ১০ হাজার টাকার প্যাকেজ।  প্যাকেজে রয়েছে গায়ে হলুদ, বিয়ের সাজ ছাড়াও ফেসিয়াল, মেনিকিওর, পেডিকিউর ফ্রি।  যোগাযোগ: ০১৯১১৩৯৮৪৮৪, ০১৭১৩১৭৬৫০৯।

গ্লোরিয়াস: গ্লোরিয়াস বিয়ে উপলক্ষে এনেছে বিশেষ ছাড়।  স্পেশাল ব্রাইডালের জন্য বুকিং দিলে হলুদের সাজ ফ্রি।  ব্রাইডালের সাজ ৬ থেকে ৮ হাজার টাকার মধ্যে যেটা আছে সেটার সঙ্গে ১টি পার্টি মেকআপ ফ্রি।  আর ৩টি পার্টি মেকআপ করলে একটি আই মেকআপ ফ্রি।  যোগাযোগ: গ্লোরিয়াস বিউটি অ্যান্ড স্পা।  ১৫/বি, র্যাঙ্কিং স্ট্রিট, ওয়ারী।  ফোন: ০১৯৪১৩২২০৫১।

শীলাজ মেকওভার: বিয়ের মৌসুমে ব্রাইডদের আকর্ষণীয় ব্রাইডাল প্যাকেজ শীলাজ মেকওভার।  গ্রাহকের সুবিধা অনুযায়ী ৬ থেকে ২০ হাজার টাকায় সাজানো হয়েছে বিভিন্ন প্যাকেজ।  ফেসিয়াল এবং চুল কালারে থাকছে সর্বোচ্চ ২০ শতাংশ ছাড়।  যোগাযোগ: শীলাজ মেকওভার, নূরজাহান রোড, ঢাকা, ০১৭৪২৫০৮১৮৭।