বইমেলার মানচিত্র!

বইমেলার মানচিত্র!

581
SHARE

প্রানের মেলা বইমেলা বাংলা একাডেমির চত্বর ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে হওয়ায় মেলার কোথায় কী রয়েছে তা নিয়ে অনেক দর্শনার্থী তথা পাঠককে ঝামেলায় পড়তে হচ্ছে। তাই মেলার কোথায় কী রয়েছে সেটা মেলার দর্শনার্থীদের জানা জরুরি। বইমেলার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বইয়ের সবগুলো প্রকাশনা রয়েছে। অর্থাৎ বই কিনতে হলে অবশ্যই যেতে হবে মেলার সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অংশে। শিশু কর্নারও মেলার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে অবস্থিত। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে প্রবেশ করলেই হাতের বাম পাশে একটি তথ্যকেন্দ্র রয়েছে। যেখান থেকে মেলার স্টল কিংবা গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া যাবে। মেলার ১৫টি প্যাভিলিয়নও সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে রয়েছে। আর মেলার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের প্রবেশ মুখে রয়েছে একটি মানচিত্র। কোন স্টল কোথায় সেটা দেখা যাবে ঐ মানচিত্রে। এমনকি সবগুলো স্টলের তালিকাও মিলবে ঐ মানচিত্রে। এছাড়াও মেলার সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অংশে ১৫জন বিশিষ্টব্যক্তির নামানুসারে যে চত্বর করা হয়েছে তাও মিলবে সেখানে। মেলার বাংলা একাডেমি ও সোহরাওয়ার্দী দুই অংশেই নতুন বইয়ের মোড়ক উম্মোচনের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। একাডেমির নজরুল মঞ্চে নতুন বইয়ের মোড়ক উম্মোচনের পাশাপাশি সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অংশেও বইয়ের মোড়ক উম্মোচন করা যাবে। বাংলা একাডেমির অংশে বর্ধমান হাউজের বেদিতে মিলবে একটি তথ্যকেন্দ্র। সেটি থেকে মেলার বেশ গুরুত্বপূর্ণ তথ্যসহ মেলায় আসা নুতন বই, নতুন বইয়ের মোড়ক উম্মোচনের খবরা-খবর প্রচার করা হয়। আর মেলার একাডেমির অংশে রয়েছে সরকারী, বেসরকারী বিভিন্ন সংস্থা, মিডিয়া, বাংলাদেশ শিশু একাডেমি, এনজিও সহ বিভিন্ন সেবা প্রদানকারীর স্টল।  মেলার সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অংশ ও একাডেমির দুই অংশের প্রবেশ মুখেই রয়েছে র‌্যাব সহ আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর বুথ। এছাড়াও পুরো মেলায় অগ্নিনির্বাপক ব্যবস্থার জন্য দুই অংশে দমকল বাহিনী রয়েছে। দমকল বাহিনীর মূল স্টেশনটি মেলার একাডেমির চত্বরের বর্ধমান হাউজের পশ্চিম কর্নারে অবস্থিত। যদিও মেলার বিভিন্ন চত্বর এবং পয়েন্টেই রয়েছে দমকল বাহিনীর টিম। একাডেমি প্রাঙ্গনে রবীন্দ্র স্মৃতিবিজড়িত শিলাইদহ কুঠিবাড়ির আদলে ‘লেখককুঞ্জ’ রয়েছে বর্ধমান হাউজের সামনে। এছাড়াও একাডেমির বর্ধমান হাউজের পূর্বপাশে রয়েছে মিডিয়া সেন্টার। একাডেমির বহেরাতলায় রয়েছে লিটল ম্যাগ চত্বর। যেখানে পাওয়া যাবে মুক্তচিন্তার লেখকদের লেখা বিভিন্ন বই।