পছন্দ সই গল্পের চরিত্র চাই

পছন্দ সই গল্পের চরিত্র চাই

491
0
SHARE
tanzika

অভিনেত্রী ও মডেল তানজিকা আমিন। নিয়মিত ধারাবাহিক ও খণ্ড নাটকের শুটিং নিয়ে ব্যস্ত আছেন। সমসাময়িক ব্যস্ততা নিয়ে কথা হলো তার সঙ্গে-

আনন্দ আলো: আপনার অভিনীত ‘আস্থা’ নাটকটি নিয়ে বলবেন-
তানজিকা: এটি এনটিভিতে প্রচার হচ্ছে। অনেকে বলেছেন, চলমান জীবনের নানা ঘটনার সঙ্গে ‘আস্থা’ নাটকের গল্পের খুঁজে পেয়েছেন তারা। এজাজ মুন্নার পরিচালনায় কাজ করতে গিয়ে দেখেছি গল্প ও চরিত্র কীভাবে উপস্থাপন করলে তা দর্শকের মনে দাগ কাটবে, তা নিয়ে তিনি অনেক ভাবেন। হয়তো সে কারণেই এ নাটকে দেখানো হয়েছে কেন একজন নারী তিন বছর সংসার করে একাকিত্বে ভুগছেন, একজন মা তার সনৱান ও বউমাকে কী কারণে আলাদা রাখতে চায় ও এক যুবক তার ছোট বোনের অসুখের কথা গোপন রাখছে- এমন অনেক ঘটনা নাটকটির গল্পে ফুটে ওঠেছে।
আনন্দ আলো: এখন কী কাজ নিয়ে ব্যস্ত আছেন?
তানজিকা: ‘কলিংবেল’, ‘নয় ছয়’, ‘দহন’, ‘ভিলেজ ইঞ্জিনিয়ার’সহ চলতি ধারাবাহিকগুলোর শুটিং নিয়ে ব্যস্ত আছি। আমি কিন্তু খুব বেশি কাজ করছি না। কারণ আমি চাই কাজ কম হলেও তা যেন দর্শকের ভালো লাগে। যে কারণে গল্প, চরিত্র ও নির্মাতা দেখে কাজ করছি।
আনন্দ আলো: ক‘দিন পর মুক্তি পাচ্ছে ‘ভালোবাসা এমনই হয়’ ছবিটি। এতে আপনার অভিনীত চরিত্র নিয়ে বলুন?
তানজিকা: ইমপ্রেস টেলিফিল্মের চলচ্চিত্র ‘ভালোবাসা এমনই হয়’। ছবিতে মিথিলা নামের এক প্রবাসী তরুণীর চরিত্রে অভিনয় করেছি। ছোট চরিত্র, কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ। ছবির গল্পও চমৎকার। যা অনেকের ভালো লাগবে বলে আমার ধারণা।
আনন্দ আলো: চলচ্চিত্রে কী নিয়মিত হবেন?
তানজিকা: ইচ্ছা আছে চলচ্চিত্রে অভিনয়ের। তবে ছবির গল্প ও চরিত্র পছন্দসই হতে হবে। কারণ একটি ভালো ছবি পারে শিল্পীকে দীর্ঘদিন দর্শকের মাঝে বাঁচিয়ে রাখতে। আমিও চাই তেমন ছবিতে অভিনয় করতে।

একসঙ্গে তারা চারজন

দেশের শীর্ষ বিপণন প্রতিষ্ঠান প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের মালিকানাধীন ভিশন ইলেকট্রনিক্স পণ্যের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হয়েছেন জনপ্রিয় অভিনেতা জাহিদ হাসান। এরই মধ্যে তিনি এ পণ্যের বেশকিছু বিজ্ঞাপনে অংশ নিয়েছেন। এবার কাজ করেছেন ভিশন ফ্যানের টিভিসিতে। তার সঙ্গে এ বিজ্ঞাপনে আরো রয়েছেন ‘আয়নাবাজি’খ্যাত অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী, অভিনেত্রী ফারহানা মিলি ও দিলারা জামান। সম্প্রতি রাজধানীর কোক স্টুডিওতে বিজ্ঞাপনের শুটিং করেন পরিচালক রনি ভৌমিক। পরিচালক রনি জানান, ‘চারজন তারকাকে নিয়ে বিজ্ঞাপনটি নির্মিত হয়েছে। একটি পারিবারিক গল্পে নির্মিত হয় এটি। এখানে দিলারা জামানের ছেলের চরিত্রে কাজ করেছেন জাহিদ হাসান। আর তাদের বাসার ভাড়াটিয়া হিসেবে দেখা যাবে চঞ্চল-মিলিকে। তারা স্বামী-স্ত্রীর চরিত্রে হাজির হবেন।’ বিজ্ঞাপনটি নিয়ে ভিশনের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর জাহিদ হাসান বলেন, ‘দারুণ একটি কনসেপ্টে কাজ করেছি এ টিভিসিতে। এর আগে দিলারা জামান, চঞ্চল ও মিলির সঙ্গে নাটকে কাজ করলেও এই প্রথম বিজ্ঞাপনে অভিনয় করলাম। এটি ভালো লাগবে দর্শকের।’ দিলারা জামান বলেন, ‘বেশ গোছানো একটি স্ক্রিপ্ট। পারিবারিক আবহ আছে।’ চঞ্চল চৌধুরী জানান, ‘ভিশন ফ্যানের বিজ্ঞাপনে কাজ করতে ভালোই লাগছে। দেশীয় পণ্যের প্রচারে কাজ করার আনন্দ আছে। এখানে অভিনয়ের অনেক প্রিয় মুখ রয়েছেন আমার সাথে। আশা করছি বিজ্ঞাপনটিও জনপ্রিয় হবে।’

এবার কাছে আসার অফলাইন গল্প

প্রেমিক-প্রেমিকাদের বেশিরভাগেরই এখন যোগাযোগ হয় অনলাইনে। তবে খুচরো কাজের খোঁজখবর আর অনুভূতির নিয়মিত আদান-প্রদানের ফাঁকেও কি যেন একটা শূন্যতা কাজ করে। অনলাইনের গণ্ডি পেরিয়ে অফলাইনে কাছে এসে প্রিয় মানুষের হাতের স্পর্শ কিংবা কাঁধে মাথা রাখার দু’দণ্ড সুখ ছুঁতে চায় সবাই। সাধারণ মানুষের এমন কিছু ভালোবাসার গল্পগুলো জানাতে ‘ক্লোজআপ’ আয়োজন করেছে ‘কাছে আসার অফলাইন গল্প’। ‘কাছে আসার গল্প’ ও ‘কাছে আসার সাহসী গল্প’ প্রতিযোগিতার ধারাবাহিকতায় ভালোবাসা দিবসকে ঘিরে সাজানো হচ্ছে এবারের প্রতিযোগিতা। ‘কাছে আসার অফলাইন’ গল্পটি আগামী ২০ জানুয়ারির মধ্যে পাঠাতে হবে নির্দিষ্ট ঠিকানায়। অথবা গল্পটি আপলোড করতে হবে ষষষ.ডফম্রণলযঠঢ.ডমব ওয়েবসাইটে। এছাড়া গল্পটি ই-মেইল করা যাবে থমফযমআডফম্রণলযঠঢ.ডমব ঠিকানায়। নির্বাচিত সেরা তিনটি গল্প নিয়ে তৈরি হবে ভালোবাসা দিবসের পৃথক তিনটি নাটক। এগুলো পরিচালনা করবেন দেশের জনপ্রিয় নির্মাতারা।