না ভাই আমি আর এই পৃথিবীতে আসতে চাই না : বিপ্লব সাহা

না ভাই আমি আর এই পৃথিবীতে আসতে চাই না : বিপ্লব সাহা

1165
0
SHARE

আনন্দ আলো: আপনার নামের সাথে ‘বিপ্লব’ শব্দটি আছে। কী বিপ্লব করেছেন আপনি?

বিপ্লব সাহা: বিপ্লব তো অবশ্যই করেছি। বাংলাদেশের ফ্যাশন ইন্ড্রাস্ট্রিতে কী কম বিপ্লব ঘটিয়েছি? এমন বিপ্লব করবো এটা বোধহয় বাবা-মা জানতো। আর এজন্যই আমার নামের সঙ্গে বিপ্লব জুড়ে দিয়েছেন।

আনন্দ আলো: আপনাকে সব সময়ই মিটিমিটি করে হাসতে দেখা যায়। এভাবে হাসেন কেন ভাই?

বিপ্লব সাহা: আসলে আমার আশে পাশের মানুষদের হাসতে দেখিনা তো, তাই আমার হাসি দেখে যদি সবাই একটু হাসে আর কি! হাসলে ভালো লাগে… এই আর কী!

আনন্দ আলো: এত কিছু থাকতে ফ্যাশন ডিজাইনার হলেন কেন?

বিপ্লব সাহা: ছোটবেলা থেকে এই জায়গাটায় সবচেয়ে ঘাটতি দেখেছি। একদম ছোট থাকতেই দেখতাম সবাই শুধু বিদেশি কাপড় পরে। তাই চেষ্টা করে যাচ্ছি সবাই যেনো দেশি কাপড় পরে।

আনন্দ আলো: আপনার ডিজাইন করা পোশাক যখন সুন্দরী মেয়েরা পরে তখন কি ভাবেন?

বিপ্লব সাহা: আমার ডিজাইন করা কাপড় কোনো সুন্দরী মেয়ে পরলে তার মুখটা আমি দেখতে পাইনা। দেখতে চাইও না। শুধু কাপড়টাই দেখি!

আনন্দ আলো: টেলিভিশন নাটক দেখেন? দেখলে কেনো দেখেন? না দেখলে কেন দেখেন না।

বিপ্লব সাহা: টিভি নাটক দেখি শুধুমাত্র বিজ্ঞাপন দেখার জন্য।

আনন্দ আলো: বাংলা সিনেমা দেখেন? দেখলে কেনো দেখেন? না দেখলে কেন দেখেন না?

বিপ্লব সাহা: একসময় বাংলা সিনেমা দেখতাম। কিন্তু এখন দেখি না। কারণ এখনকার সিনেমায় নিজেকে খুঁজে পাই না।

আনন্দ আলো: দেশের কোনো বিশিষ্টজন আপনার কাছে ফ্যাশন ডিজাইনিং শিখতে আসলে, তাকে প্রথমে কি শিখাবেন?

বিপ্লব সাহা: প্রথমেই তাকে শিখাবো টাকা ছাড়া কিভাবে কাজ করতে হয়। মানুষ কাজ করে টাকার জন্য। কিন্তু ব্যাপারটা উল্টো হতে হবে। আমি শিখাবো কাজ করে যেনো টাকা পায়, শুধুমাত্র টাকার জন্য যেনো কেউ কাজ না করে।

আনন্দ আলো: চাইলেই কী যে কেউ ফ্যাশন ডিজাইনার হতে পারেন?

বিপ্লব সাহা:এখন এটা একদম সহজ কাজ । খুব ফ্যাশনেবল প্রফেশন এটা। ক্রিয়েটিভ যেকোনো কাজই এখন বেশ সহজ। যে কাউকে ডিজ্ঞেস করলেই দেখবেন তিনি ফ্যাশন ডিজাইনার। আসলে কোনো কাজ শিখে করলে কঠিন লাগে আর না শিখে করলে বেশ সহজই লাগে।

আনন্দ আলো: আপনাকে একদিনের জন্য মঙ্গল গ্রহে পাঠানো হলো। কাকে সাথে নিতে চাইবেন?

বিপ্লব সাহা: ঢাকা শহরটাকে সাথে নিয়ে যাবো!

আনন্দ আলো: ঢাকা শহরকে কেন….?

বিপ্লব সাহা: মঙ্গল গ্রহে শহরটাকে নিয়ে সুন্দর করে সাজাব। তারপর আবার ফেরৎ আনব। তখন সব কিছু নতুন মনে হবে। ফকফকা, ঝকঝকা… সবাই আইন মানবে। পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ শহর হবে ঢাকা।

আনন্দ আলো: আপনি নাকি জেগে জেগে স্বপ্ন দেখেন! ঘটনা কী!

বিপ্লব সাহা: কারণ চোখ বুজলে আমি সব অন্ধকার দেখি।

আনন্দ আলো: জীবনটাকে যদি আবার শুরু থেকে পেতেন, তাহলে কিভাবে শুরু করবেন?

বিপ্লব সাহা: মানুষ হয়ে আর জন্মাতে চাই না! কারন এই পৃথিবীতে মানুষই এখন ভয়ংকর জীব। তাই আবার জন্মালে পশু পাখি হয়েই জন্মাতে চাই। অন্তত ভয়ংকর মানুষগুলোকে আর মোকাবিলা করতে হবে না।

আনন্দ আলো: প্রথম কোন মানবীর প্রেমে পড়েছিলেন? বুকে হাত দিয়ে বলবেন…

T-20-1-2বিপ্লব সাহা: যখন প্রেমে পড়ার সময় ছিলো, তখন মানবীর প্রেমে পরিনি। পরেছিলাম কাপড়ের প্রেমে, রঙের প্রেমে, কাটিং-এর প্রেমে।

আনন্দ আলো: আপনি অজান্তে একটি অপরাধ করেছেন। শাস্তি হিসাবে এমন একটা জোকস বলুন যাতে সবাই হো হো করে হেসে ওঠে…

বিপ্লব সাহা: জোক্স বলবো না। একটা সত্য ঘটনা বলি। আমরা নারায়ণগঞ্জে যখন প্রথম শোরুম করেছিলাম সেটা ছিলো একটা আগুন লাগা পরিত্যাক্ত মার্কেট। সেখানে কোনো দোকান ছিলো না। মানুষজন যেতো প্রাকৃতিক কর্ম সারার জন্য। আমরা ঐ মার্কেটে একেবারেই নামমাত্র মূল্যে দোকান ভাড়া নেই। তাই আমরা সব সময় অপেক্ষায় থাকতাম কখন একজন মানুষ মার্কেটের ভিতরে আসবেন প্রাকৃতিক কর্ম সারতে আর তখুনি আমরা আমাদের দোকানটি সম্পর্কে তাকে, তাদেরকে বলবো।

আনন্দ আলো: আপনার পাঁচটি গুণের কথা বলুন।

বিপ্লব সাহা: নিজের গুণ নিজে না বলাই ভালো। কারণ নিন্দুকেরা বেগুন হয়ে যাবে।

আনন্দ আলো: আপনার পাঁচটি নেতিবাচক দিক বলুন।

বিপ্লব সাহা: সবসময় মানুষকে খুব বিশ্বাস করি। কারো অল্প কথায় তুষ্ট হয়ে যাই। মিথ্যা কথা বলতে পারি না। কাজের পেছনে বেশি ছুটি। নিজের মানুষকে সময় দেই না।

আনন্দ আলো: পৃথিবীতে আরেকবার আসার সুযোগ পেলে কী হতে চাইবেন?

বিপ্লব সাহা: না ভাই, আমি আর এই পৃথিবীতে আসতেই চাই না। ব্যাগ গুছিয়ে এখুনি পৃথিবী থেকে চলে যেতে চাই। কারন পৃথিবী আর আগের মত নাই! ভয়াবহ হয়ে যাচ্ছে।

আনন্দ আলো: ফ্যাশন ডিজাইনার হিসেবে আপনার ভবিষ্যৎ স্বপ্ন কী!

বিপ্লব সাহা: বাংলাদেশের প্রতিটি মানুষ যেন দেশি কাপড় পড়বে।

আনন্দ আলো: প্রেমের নাম বেদনা। ভালোবাসার নাম কী?

বিপ্লব সাহা: ভালোবাসার নাম যন্ত্রনা!

আনন্দ আলো: আপনার প্রতিষ্ঠানের নাম রঙ। আপনার কোন রঙ পছন্দ? রঙ আর রংবাজির মধ্যে পার্থক্য কী?

বিপ্লব সাহা: আমার প্রিয় রং সাদা। রং একটা উপাদান আর রংবাজি হচ্ছে একটা মানুষের কর্ম। দুটোর মধ্যে পার্থক্য তো পরিষ্কার। আর আমারে এতো কথা জিজ্ঞাসা করতেছেন ক্যান? একজন রংবাজকে জিগান না!