ত্বক সতেজ রাখার সহজ উপায়!

ত্বক সতেজ রাখার সহজ উপায়!

SHARE
Tok

কালো সে যতই কালো হোক দেখেছি তার হরিণ কালো চোখ। কালো মেয়ের জন্য এই কবিতাটি অনেক প্রেরণার, উৎসাহেরও বটে। আসলে গায়ের রংই কি সব? বোধকরি না। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো মানুষের মন, নিজের প্রতি আত্মবিশ^াস। শুধু আত্মবিশ^াসের জোরেই অনেক মেয়ে চেহারায়, মেধায় নিজেকে অনন্য করে তুলেছে এই উদাহরণ আমাদের চারপাশে অনেক আছে।

গায়ের ত্বক নিয়ে অনেকে অহেতুক দুশ্চিন্তায় ভোগেন। আহারে গায়ের ত্বক খসখসে হয়ে যাচ্ছে। চেহারা তাই লাবণ্য হারাচ্ছে। এখন কি করি? এ ধরনের অস্থিরতায় ছটফট করে অনেক মেয়ে। অথচ একটু সচেতন থাকলে, কিছুটা নিয়ম মেনে চললেই নিজের ত্বকের যতœ নিজেই করা সম্ভব। বিশ^াস হচ্ছে না? তাহলে আসুন আমরা একটা প্রক্রিয়া মেনে চলি।

ত্বক উজ্জ্বল ও ফ্রেশ রাখতে নিয়মিত ভিটামিন সি জাতীয় খাবার খাওয়া উচিত। এক গøাস অরেঞ্জ জুস বা মুসাম্বি জুসে ১ চামচ লেবুর রস ও আধা চামচ মধু মিশিয়ে খালি পেটে পান করুন। নিশ্চিত করে বলতে পারি এতে ত্বক উজ্জ্বল হবে, শরীর তরতাজা হয়ে উঠবে।

ত্বক সজীব রাখার জন্য ভিটামিন সি যুক্ত খাবারও অনেক কাজে দেয়। প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় গাজর, তরমুজ, পাকা পেঁপে রাখতে পারেন। খাবারের তালিকায় রঙিন ফলমূলের তালিকা বড় করুন। অবশ্যই আপনার ত্বক সজীব ও সতেজ হয়ে উঠবে।

ত্বক সুস্থ ও সজীব রাখতে নিয়মিত কায়িক পরিশ্রমও জরুরি। অনেক গৃহবধূ আছেন বাসা থেকে বেরই হন না। হাঁটাহাঁটি করার সুযোগও পান না। অথবা সুযোগ থাকা সত্তে¡ও হাঁটাহাঁটি করেন না। কিন্তু মনে রাখবেন ত্বকের সুস্থতা নিয়মিত জগিং ও হাঁটাহাঁটির ওপরও নির্ভর করে। ত্বক ভালো রাখার অন্যতম শর্ত হচ্ছে নিয়মিত পর্যাপ্ত পরিমাণে বিশুদ্ধ পানি পান করা। সারাদিনে কমপক্ষে ৮/১০ গøাস পানি পান করবেন। এর ফলে শুধু ত্বক নয় আপনার শরীরও সুস্থ থাকবে।

সেই আদিকাল থেকেই গায়ের রং বিশেষ করে ত্বকের যতœ নিয়ে নারীদের অনেক চিন্তা। রোদে পুড়ে, বৃষ্টিতে ভিজে, শারীরিক অসুস্থতা, দীর্ঘ সময় ধরে রান্নার কাজে ব্যস্ত থাকায় নারীর ত্বক উজ্জ্বলতা হারায়। প্রাকৃতিক উপায়েও ঘরোয়াভাবে আপনার ত্বকের যতœ নিতে পারেন। দুধ আর কাঁচা হলুদ আপনাকে এ ক্ষেত্রে সাহায্য করবে। কীভাবে? আসুন জেনে নেই ত্বকের যতেœ দুধ আর কাঁচা হলুদের জাদুমন্ত্র!

প্রতিদিন এক গøাস গরম দুধে আধা চা চামচ কাঁচা হলুদ বাটা মিশিয়ে পান করুন। হলুদে রুচি না এলে মধু মিশিয়ে নিন। নিয়মিত হলুদ মেশানো দুধ পান করলে আপনার ত্বক হয়ে উঠবে ভেতর থেকে ফর্সা।

দুধে কাঁচা হলুদ বাটা না মিশিয়ে আরও একটি পদ্ধতি অনুসরণ করতে পারেন। দেড় ইঞ্চি সাইজের এক টুকরো হলুদ নিন। তারপর টুকরো টুকরো করে কেটে এক গøাস দুধে দিয়ে দুধ ভালো করে ফুটিয়ে নিন। দুধ এক সময় গাঢ় হলুদ রং ধারণ করবে। এবার পান করুন। একদিনে কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হবে না। কাজেই নিয়মিত এই অভ্যাস করুন। তবে যাই করেন না কেন প্রতিদিন নিয়মিত পর্যাপ্ত পরিমাণে বিশুদ্ধ পানি পান করবেন। ত্বকের যতেœ পানির বিকল্প আর কিছু নাই।