ছাপা বইপড়ার আনন্দই অন্যরকম-প্রধানমন্ত্রী

ছাপা বইপড়ার আনন্দই অন্যরকম-প্রধানমন্ত্রী

813
SHARE
PM

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, যে যাই বলুক এখনও ছাপা অক্ষরের বই উল্টে পাল্টে পড়ার মজাই আলাদা। ছাপা বইয়ের গুরুত্ব অনেক। কাজেই মান সম্পন্ন বই প্রকাশে প্রকাশকদের আরও মনযোগী হওয়া উচিৎ। গতকাল বুধবার বাংলা একাডেমিতে মাসব্যাপি একুশে বইমেলার উদ্বোধনকালে প্রধানমন্ত্রী একথা বলেছেন। সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। সংস্কৃতি সচিব বেগম আকতারী মমতাজ, চীন থেকে আগত লেখক ডং ইউ চেন, অস্ট্রিয়ার মেনফ্রেড কোবো, পোয়ের্তোরিকোর লুস মারিয়া লোপেজ, ভারতের চিন্ময় গুহ, বাংলাদেশের সৃজনশীল প্রকাশকদের পক্ষে মফিদুল হক অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন একাডেমির মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খান। অনুষ্ঠান উপস্থাপনায় ছিলেন নাট্যজন রামেন্দু মজুমদার, বাংলা একাডেমির পরিচালক শাহিদা খাতুন।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রাণের মেলা, জ্ঞানের মেলা বইমেলায় প্রাণভরে ঘুরতে ইচ্ছে করে। স্টলে স্টলে ঘুরে বই কিনতে মন চায়। কিন্তু এখন তো আর সেটা সম্ভব নয়। তিনি বলেন, আমাদের পরিবারে প্রতিটি সদস্যের বইপড়ার অভ্যাস গড়ে উঠেছে। এক সময় ছেলেমেয়েরা বিদেশ থেকে দেশে এলে সঙ্গে করে একগাদা বই নিয়ে আসতো। বিদেশে ফিরে যাবার সময় বইগুলো আর নিয়ে যেতো না। আমি মনের সুখে বইগুলো পড়তাম। এখন আর সে সুযোগ পাই না। কারণ এখন তো মোবাইল ফোনের ছোট্ট যন্ত্রটিতে রাজ্যের বইয়ের সন্ধান মেলে। চাইলে পৃথিবীর বড় বড় বইয়ের লাইব্রেরিকেও হাজির করা যায়। তবুও বলবো, ছাপা বইয়ের গুরুত্বই আলাদা। ছাপা বইয়ের মলাট উল্টে পাল্টে পড়ার মধ্যে যে আনন্দ তা মোবাইলের বইয়ে পাওয়া সম্ভব নয়। আর তাই ছাপা বইয়ের প্রতি সকলকে নজর দেয়ার আহবান জানাই