গানবাজনা

গানবাজনা

SHARE

আড়ং ডেইরী-চ্যানেল আই বাংলার গান ২০১৫

লোকসঙ্গীতের প্রতিযোগিতামূলক রিয়েলিটি শো ‘আড়ং ডেইরী-চ্যানেল আই বাংলার গান ২০১৫’ -এর সম্প্রচার শুরু হয়েছে। এ প্রতিযোগিতার প্রধান পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান ব্র্যাক ডেইরী অ্যান্ড ফুড এন্টারপ্রাইজেজ। প্রতিযোগিতাটির প্রধান বিচারক হিসেবে প্রতি পর্বে থাকবেন একজন করে বাউল সাধক এবং প্রধান বিচারকের সঙ্গে সহবিচারক হিসেবে থাকবেন বিশিষ্ট রবীন্দ্রসঙ্গীত শিল্পী রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা ও ব্যান্ড লিজেন্ড আইয়ুব বাচ্চু। পরিচালনা করছেন রেহানা সামদানী। মূল অনুষ্ঠানটির উপস্থাপনা করছেন মুনমুন। বিভাগীয় পর্যায়ের উপস্থাপনা করছেন জেবা আনিকা। আধুনিক উপস্থাপনার মাধ্যমে এই প্রজন্মের দর্শক শ্রোতার কাছে লোকসঙ্গীত তথা আঞ্চলিক গানকে জনপ্রিয় করে তোলা এবং নবীন কণ্ঠশিল্পীদেরকে লোকগানে উৎসাহিত করা এই আয়োজনের অন্যতম উদ্দেশ্য।

এরই মধ্যে শেষ হয়েছে পাঁচ বিভাগের প্রাথমিক বাছাই পর্ব। ঢাকা বিভাগের প্রাথমিক বাছাই পর্ব ১৮ ডিসেম্বর নটরডেম কলেজ প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হবে। পাঁচ বিভাগ থেকে ‘বাংলার গান’ পেয়েছে ৮০ জন প্রতিযোগী। বাকি বিভাগের প্রাথমিক বাছাই শেষে নির্বাচিত সবাইকে নিয়ে শুরু হবে দ্বিতীয় ধাপ। এরপর বাছাই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ৪৮ জনকে নির্বাচিত করা হবে। সেখান থেকে বাছাই করা হবে মূল প্রতিযোগিতার জন্য ১২ জন প্রতিযোগীকে। নির্বাচিত ১২ থেকে ধাপে ধাপে ফাইনালে বিজয়ী কণ্ঠ বেরিয়ে আসবে। অনুষ্ঠানে প্রতিযোগীদের প্রশিক্ষক ও বিচারক হিসেবে থাকবেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় ব্যান্ড বাপ্পা অ্যান্ড ফ্রেন্ডস, জলের গানসহ তিনটি ব্যান্ড দল। এ ব্যান্ড দলগুলোর সদস্যরা লোকসঙ্গীত গানগুলোকে কম্পোজ করে আধুনিকভাবে উপস্থাপনের জন্য প্রতিযোগীদের গ্রুমিং করাবেন। বিভাগভিত্তিক বাছাই পর্বে বিচারক হিসেবে অংশ নিচ্ছেন খ্যাতিমান লোকসঙ্গীত শিল্পীরা।

আড়ং ডেইরী-চ্যানেল আই বাংলার গান ২০১৫ প্রতিযোগিতাটি ২৭টি পর্বে ধারণ করা হবে। ধারণকৃত অনুষ্ঠান প্রচার শুরু হয়েছে ৭ ডিসেম্বর থেকে। প্রতি সোমবার রাত ৭-৫০ মিনিটে চ্যানেল আই-এর পর্দায় দর্শকরা অনুষ্ঠানটি উপভোগ করতে পারবেন।

আমি লালনকে নিয়েই এগিয়ে যেতে চাই: শাহনাজ বেলী

জনপ্রিয় ফোকশিল্পী শাহনাজ বেলী। সম্প্রতি তিনি ব্যস্ত রয়েছেন নতুন অ্যালবামের গান নিয়ে। পাশাপাশি প্লেব্যাকের কাজটি করছেন নিয়মিত। এছাড়া দেশ, বিদেশে স্টেজ প্রোগ্রামে ব্যস্ত রয়েছেন। সাম্প্রতিক সময়ে তার ব্যস্ততার চুম্বক অংশ তুলে ধরা হলো আনন্দ আলোর পাঠকদের জন্য।

Ganbazna-11-09আনন্দ আলো: বর্তমানে আপনার ব্যস্ততা কী নিয়ে?

শাহনাজ বেলী: বর্তমানে আমার ব্যস্ততা শুধু গান নিয়ে। বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে সঙ্গীত বিষয়ক অনুষ্ঠানে লাইভ শো করছি। অডিও অ্যালবামের কাজ করছি। দেশ, বিদেশে স্টেজ প্রোগ্রাম নিয়ে ব্যস্ত আছি। এছাড়া নিয়মিত চলচ্চিত্রে প্লেব্যাকও করছি।

আনন্দ আলো: আপনার অ্যালবামের কী খবর?

শাহনাজ বেলী: স্টেজ ব্যস্ততার কারণে আসলে অ্যালবামে তেমন একটা মনোযোগী হতে পারিনি। তবে আমি নতুন তিনটি অ্যালবামের কাজ করছি। শাহ আব্দুল করিম, রাধা রমন ও লালনের গান নিয়ে অ্যালবাম করছি। সঙ্গীতায়োজনের ক্ষেত্রে ভিন্নতা আনা হবে। তবে এ বছরে তো আর হচ্ছে না, যেহেতু সময় কম। তাই ঠিক করেছি নতুন বছরেই তিনটি অ্যালবাম প্রকাশ করবো।

আনন্দ আলো: গান আপনার কাছে কী?

শাহনাজ বেলী: গান আমার কাছে জীবন, গান না গাইলে আমি বাঁচতে পারি না। গান একটা মানুষের পিপাসা। পানি না খেলে মানুষের একটা অতৃপ্তি থেকে যায়। গান এমন একটা জিনিস কখনো পরিপূর্ণ হয় না। যারা গান করে তাদের একটা তৃষ্ণা রয়ে যায়।

আনন্দ আলো: সঙ্গীত নিয়ে আপনার ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা কী?

শাহনাজ বেলী: সঙ্গীত নিয়ে একজন শিল্পীর অনেক কিছুই ভাবনা থাকে। আমি লালনের গান দিয়ে একটা পর্যায়ে যেতে চাই। একসময় মানুষ যেন বলতে পারে শাহনাজ বেলী লালনের অনেক গান করে গেছে। ‘আমি জড়ায়া ধরলাম’-এ ধরনের গান আজকে মানুষ শুনলে দুদিন পর আর শুনবে না। তবে লালন, হাছনরাজা ও শাহ আব্দুল করিমের গান করলে মানুষের মাঝে আজীবন বেঁচে থাকা যায়।