খেলার মাঠ থেকে বইয়ের মাঠ

খেলার মাঠ থেকে বইয়ের মাঠ

460
SHARE
Captain-and-Vice-captain-

ফরহাদ আলম
“বয়স হয়েছে। ধোয়ায় ঢাকা একটা ঘটনা মনে পড়ছে । দিনটাও মনে হয় কুয়াশাচ্ছন্ন ছিলো। আমরা বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে প্যাকটিস করছিলাম। কে একজন দেখিয়ে দিলো কুয়াশা ভেদ করে এগিয়ে আসতে থাকা ছেলেটিকে। দীর্ঘদেহী ; শক্ত গড়নের লিকলিকে একটা ছেলে শিশুদের মতো মুখটা নজর কাড়লো। কথা বলতে লজ্জা পাচ্ছিলো । আমি ইংরেজী বলছিলাম বলে মনে হয় একটু বেশী সংকুচিত ছিলো। একটু সময় নিয়ে ওর জড়তা ভাঙ্গানোর জন্যই জানা, নামটা আবার জিঞ্জেস করলাম। মাথা নিচু করে একটু লাজুক হেসে বলল- মাশরাফি বিন মুর্তজা । হ্যা আপনাদের জন্য মাশরাফি বিন মুর্তজা; ম্যাশ। আমার কাছে পাগল ।”
মাশরাফি বিন মুর্তজাকে নিয়ে লেখা দেবব্রত মুখোপাধ্যায়ের “মাশরাফি” বইয়ের শুরুতে ঠিক এই কথা গুলোই বলেছেন ডেভ হোয়াটমোর তার আশীর্বাণীতে। শুধু ডেভ হোয়াটমোরের কাছেই নয় আমাদের সতেরো কোটি বাঙ্গালীর কাছেই মাশরাফি মানেই এক উন্মাতাল পাগলের নাম। যে পাগল ভালোবাসতে জানে , ভালোবাসাতে জানে । বীরের মতো নেতৃত্ব দিতে জানে, নেতৃত্ব শেখাতে জানে। আর দিনের পর দিন নিজেকে আহত করে সৃষ্টির নেশায় মাতম হয়ে সৃষ্টি নিয়ে জ্বলে উঠতে পারে সে তো নিঃসন্দেহেই পাগল ছাড়া আর কিছু নয় ।
দেবব্রত মুখোপাধ্যায় সমস্ত জাতির দায়ভার নিজের কাধে নিয়েই বীরদর্পে মাশরাফিকে নিয়ে লিখেছেন বইটি। যে বইয়ের চার শত সত্তর পৃষ্টার কালো কালির ক্যানভাজে পাঠক সহজেই ঘুরে আসবে মাশরাফি নামের এই জাতীয় হিরোর জীবনের প্রতিটি অনু আর পরমানুর খোজে । সর্বমোট ৩৪ টি অধ্যায়ের সংযোজনে অলঙ্কিত করা হয়েছে বইটি। এবং পরশিষ্ট ৩ টি। প্রথম পরশিষ্ট – পূনার্ঙ্গ সাক্ষাতকার (তিন পর্বে), দ্বিতীয় পরশিষ্ট- মাশরাফি মিথ নয় -হাবিবুল বাশার সুমন, তৃতীয় পরশিষ্ট- এ রকম চরিত্র আর পাবেন না – সাকিব আল হাসান। যার প্রথম অধ্যায় শুরু হয়েছে “ভুলে যাওয়া স্মৃতি,বিস্মৃত অক্ষর ” আর শেষ হয়েছে “ আচার্য মাশরাফি , আশ্চর্য মাশরাফি”। পাড়ার গোলির হিরো ছেলেটি একদিন সারা দেশের হিরোয় পরিনত হওয়ার বাস্তব গল্পটি অত্যন্ত নিখুত আর পরম যতœ সহকারে কলমের আচড়ে সাজিয়েছেন লেখক দেবব্রত মুখোপাধ্যায় । মাশরাফি বইটির প্রকাশক : বাংলাদেশ ক্রিকেট সাপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন। আর মূল্যবান বইটি প্রকাশ করেছেন ঐতিহ্য প্রকাশনী। প্রচ্ছদ: নওরোজ ইমতিয়াজ ,আর প্রচ্ছদের ছবিটি রতন গোমজের। মাশরাফি বইটির অনলাইন ডেলিভারী পার্টনার আজকের ডেল ডট কম । বইটির মূল্য ৬৭৫ টাকা মাত্র । বইটি পাওয়া যাচ্ছে একুশে বই মেলা সোরওয়ার্দী উদ্যান ঐতিহ্য প্রকাশনী ,স্টল নম্বর : ৪৩০।
সাইমন বার্নস তার ‘বুক অফ হিরোস’ বইয়ে লিখেছিলেন “হিরোরা না থাকলে খেলাধুলার ব্যাপারটা আমাদের স্বপ্নকে এভাবে নিয়ন্ত্রিত করতে পারতো না। খেলাধুলার জনপ্রিয়তার স্বার্থেই হিরোদের উপস্থিতি জরুরী।” গুনী লেখক আর ক্রিড়া সাংবাদিক দেবব্রত মুখোপাধ্যায়ের আরো একটি সৃজনশীল সৃষ্টি সাকিব আল হাসানকে নিয়ে লেখা সাক্ষাতকারধর্মী বই “সাকিব আল হাসান , আপন চোখে ভিন্ন চোখে ”
ভিন্ন চোখে দেখার কারনেই বইটির মুখবন্ধে ক্রিকেট লিজেন্ড হাবিবুল বাশার সুমন লিখেছেন ,“ ২০০৬ সালের কথা, পরের বছর বিশ্বকাপকে সামনে রেখে দারুন প্রস্তুতি নিচ্ছি আমরা । প্রস্তুতি মানে দেশে বিদেশে একটার পর একটা সিরিজ খেলছি। সেই সময়ে জিম্বাবুয়ে সফরে আমাদের সঙ্গে একটা নতুন ছেলেকে দিয়ে দেওয়া হলো। ব্যাটিং অলরাউন্ডার; বা হাতি স্পিনার। সেই যে দেখা শুরু ,আমার জীবনে যত আশ্চর্য কিছু দেখেছি তার মধ্যে অন্যতম একটা আশ্চর্যের নাম সাকিব।” এভাবেই শুরু থেকেই নিজের জাত চিনিয়েছেন বিশ্ব সেরা অল রাউন্ডার সাকিব আল হাসান।