Home এক্সক্লুসিভ খবরটা সত্য নয়!

খবরটা সত্য নয়!

SHARE
Chancal-CHowdhury-1

দুই পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী। সম্প্রতি হুমায়ূন আহমেদের ‘দেবী’ উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত একটি ছবির শুটিং শেষ করেছেন তিনি। এতে ছবির প্রধান চরিত্র মিসির আলী চরিত্রে অভিনয় করেছেন। অভিনয় ও সমসাময়িক নানা বিষয় নিয়ে কথা হলো তার সঙ্গে-

আনন্দ আলো: এখনকার ব্যস্ততা কী নিয়ে?

চঞ্চল চৌধুরী: ধারাবাহিক ও খÐ নাটকে অভিনয় করছি। এগুলোর নিয়মিত শুটিং নিয়ে ব্যস্ত থাকতে হচ্ছে।

আনন্দ আলো: ‘দেবী’র খবর কী?

চঞ্চল চৌধুরী: দেবী ছবির শুটিং শেষ করেছি। ডাবিং ও এডিটিং বাকি আছে। এ ছবিতে কাজ করে দারুণ লেগেছে। একজন অভিনেতার স্বপ্নই থাকে, ব্যতিক্রমী চরিত্রে অভিনয় করা। সেদিক থেকে বলতে মিসির আলী চরিত্রটি বেশ চ্যালেঞ্জিং একটি চরিত্র।

আনন্দ আলো: আপনাকে নিয়ে ক’দিন আগে অসুস্থতার খবর প্রকাশ পায়, ঘটনাটি নাকি মিথ্যা?

চঞ্চল চৌধুরী: সম্প্রতি কতগুলো অনলাইনে আমার দেহে অস্ত্রোপচারের গুজব ছড়ানো হয়েছে। তাই আমি আমার ভক্তদের বলতে চাই-না, আমার কোনো অপারেশন হয়নি। এটা একদম মিথ্যা খবর। এখন অনলাইনভিত্তিক পত্রিকাগুলো যা খুশি লিখে দেয়, জিজ্ঞেস করারও প্রয়োজন বোধ করে না।

আনন্দ আলো: আপনাকে দর্শক হাসির নাটকেই বেশি দেখতে পায়…

চঞ্চল চৌধুরী: আমি দর্শকের ভালো লাগার জন্য কাজ করি, হাসানোর জন্য নয়। আমার অভিনীত নাটক দেখে দর্শক যেন শতভাগ বিনোদন পান সেই চেষ্টাই থাকে। আর আমি মনে করি, বিনোদন মানেই তো কেবল হাসানো না। হাসি-কান্না, ভালো লাগা বা খারাপ লাগা সব মিলিয়েই নাটক।

আনন্দ আলো: গানের কী খবর?

চঞ্চল চৌধুরী: গানটা নিজের ভালো লাগা থেকেই গান করি। শখ বা ভালোলাগা থেকে কিছু গান করেছি। বাজারে অ্যালবাম আকারে প্রকাশ হয়েছে, ভালোবাসা থেকে করেছি। শিল্পী হিসেবে বা ব্যবসার জন্য নয় ভবিষ্যতে নিজের ভালো লাগা থেকেই একটি গানের সিডি করব।

আনন্দ আলো: স্টারিজম কেমন উপভোগ করেন?

চঞ্চল চৌধুরী: ভালো লাগার ব্যাপার হলো ১৭ কোটি মানুষের মধ্যে আমাকে মানুষ আলাদা করে চেনে, পছন্দ করে; রাস্তায় বের হলে কথা বলতে চায়, ছবি তুলতে চায়। আমি খুবই আনন্দিত হই। এটা আমার একজীবনের প্রাপ্তি।

আলোচিত বেসিক আলী

জনপ্রিয় কার্টুন চরিত্র ‘বেসিক আলী’ টেলিভিশন সিরিজ হিসেবে প্রচার হচ্ছে চ্যানেল আইতে। এতে বেসিক আলী চরিত্রে অভিনয় করছেন তৌসিফ। আর তার বিপরীতে রিয়া চরিত্রে সাবিলা নূর। অন্যান্য চরিত্রে আছেন আব্দুল্ল­াহ রানা (তালিব আলী), বিজরী বরকতুল্ল­াহ (মলি আলী), সাবিলা নূর (রিয়া), মীর নওফেল আশরাফি জিসান (হিলে­াল), রিফাত জাহান (নেচার) এবং আনন্দ আজিম (ম্যাজিক)। কার্টুনটিতে পাঠক এক দশকেরও বেশি সময় ধরে মজে আছে। বেসিক আলীর স্রষ্টা সাংবাদিক শাহরিয়ার খান। প্রথমে ১৩ পর্ব নিয়ে ‘বেসিক আলী’ শুরু হয়েছে টেলিভিশন দর্শকদের জন্য। তেরো পর্বের মধ্যে উল্লেখযোগ্য গল্পগুলো হচ্ছে: ‘হিলে­ালের যন্ত্রণা’, ‘বেগার্স’, বাঙ্গু ব্যাংক, ‘গান যন্ত্রণা’, ‘খেলোয়াড়’ প্রভৃতি।

বেসিক আলীর স্রষ্টা শাহরিয়ার খান বলেন, আমরা মনে করি, চ্যানেল আই-এর মাধ্যমে বেসিক আলী আরো দর্শক তৈরি করবে। বেসিক আলীর নির্মাতা কাজল আরেফিন বলেন, আমি নিয়মিত নাট্যনির্মাতা। ‘বেসিক আলী’ টেলিভিশন সিরিজ নির্মাণের অভিজ্ঞতা তাই একদম আলাদা। কারণ নাটকে আমরা রিয়েলিটি বেশি খুঁজি। এ কাজে লজিক কম, কিন্তু ইলজিক ফানই বেশি। ‘দর্শক ইলজিক ফানেই মজে থাকবে এটি আমার বিশ্বাস।’ বেসিক আলী নিবেদন করছে ইমপালস হাসপাতাল।