কবিতার শুদ্ধ শব্দে আলো সঞ্চয়ের প্রত্যাশা

কবিতার শুদ্ধ শব্দে আলো সঞ্চয়ের প্রত্যাশা

561
SHARE

অমর একুশে এবং বাংলা একাডেমির হীরকজয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে গতকাল বাংলা একাডেমিতে ে াভাকিয়া, মরক্কো, সুইডেন, তাইওয়ান, যুক্তরাজ্য, ভারত ও বাংলাদেশের কবিদের অংশগ্রহণে দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক কবিতা উৎসব অনুষ্ঠিত হয়। সকাল ১০টায় উৎসবের উদ্বোধন করা হয় একাডেমির আবদুল করিম সাহিত্যবিশারদ মিলনায়তনে। উদ্বোধন পর্বে বাংলা কবিতার অতীত ও সাম্প্রতিক ধারা বিষয়ে প্রবন্ধ পাঠ করেন কবি মুহম্মদ নূরুল হুদা। জীবনানন্দ দাশের কবিতা অনুবাদের অভিজ্ঞতা বর্ণনা করেন ব্রিটিশ কবি ও জীবনানন্দ গবেষক জো উইন্টার। এ অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হক। সঞ্চালনা  করেন কবি আসাদ চৌধুরী ও কবি-অনুবাদক কায়সার হক। মুহম্মদ নূরুল হুদা তাঁর প্রবন্ধে বলেন, বাংলাদেশের কবিতা চলি­শ দশক থেকে সাম্প্রতিক শূন্য দশক পর্যন্ত বিভিন্ন মাত্রা অংকিত করে বিশ্বকবিতার ধারায় ক্রমশ সাবলীলভাবে যুক্ত হয়েছে। একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধ এদেশের কবিতার এক বড় প্রভাবক। নানা ধরনের নিরীক্ষাকে আলিঙ্গন করে আমাদের কবিতা মানুষের মুক্তির অঙ্গীকার ধারণপূর্বক নতুন দিকে ধাবিত হচ্ছে।  জো উইন্টার তাঁর বক্তৃতায় বলেন, বাঙালি কবি জীবনানন্দ দাশ মানুষের মনের ধূসর অঞ্চলে তাঁর কবিতার আলো ফেলেছেন যা বাংলার সীমানা পেরিয়ে বিশ্বপাঠককে আকৃষ্ট করেছে।  কবিতাপাঠে অংশ নেন সুইডেনের কবি বেনত্ বার্গ, ে াভাকিয়ার কবি মিলান রিচার, মরক্কোর কবি বেনাইসা বোমালা, নরওয়ের কবি এরলিং কিতেনসেন, তাইওয়ানের কবি লী কুই-শিন, লীন ফো-অর, লী রিও-ইয়াং, ড. ফাং ইয়া-চীন, তাই চীন-চো, চীন জিউ-জেন, নেপালের কবি বিধান আচার্য, চেট নাথ ক্যানেল প্রমুখ।  সভাপতির বক্তব্যে সৈয়দ শামসুল হক বলেন, ভাষা আমাদের বিভক্ত করে আর কবিতা আমাদের একতাবদ্ধ করে। কবিতার শুদ্ধ শব্দে আমরা জীবনে চলার আলো সঞ্চয় করি। তিনি বলেন, চেক থেকে বাংলাদেশÐ সব জায়গাতেই গণহত্যার মতো ভয়াবহ অভিজ্ঞতার ভিতর দিয়ে কবিদের যেতে হয়েছে। এই দুঃস্বপ্নের রাত পেরিয়ে আলোকিত ভোরের ঠিকানা কবিরাই দিতে পারেন সারা বিশ্বজুড়ে। বিকেলে মেলার মূলমঞ্চে কবিতা উৎসবের দ্বিতীয় অধিবেশনে কবিতা পাঠে অংশ নেন সুইডেনের কবি র্লাস হেগার, লত্তে সেদেরহোলম, ভারতের কবি রাসবিহারী দত্ত ও আনসার উল হক, বাংলাদেশের কবি রুবী রহমান, কবি আলতাফ হোসেন, হাবীবুল­াহ সিরাজী, মুহাম্মদ সামাদ, আনোয়ারা সৈয়দ হক, অসীম সাহা, জাহিদুল হক, শিহাব সরকার, আসলাম সানী, তারিক সুজাত, টোকন ঠাকুর এবং পিয়াস মজিদ। এই অধিবেশনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কবি সৈয়দ শামসুল হক। সভাপতিত্ব করেন কবি হাবীবুল­াহ সিরাজী। অধিবেশন সঞ্চালনা  করেন কবি মুহাম্মদ সামাদ।