Home শীর্ষ কাহিনি আস্থা+সমঝোতা+ শ্রদ্ধাবোধ+ভালোবাসা= বিয়ে

আস্থা+সমঝোতা+ শ্রদ্ধাবোধ+ভালোবাসা= বিয়ে

SHARE
bidda-sinha-mim

আনন্দ আলো প্রতিবেদন: বিয়ে নিয়ে চমৎকার একটি উক্তি আছে। ম্যারিজ হইলো দিল্লিকা লাড্ডু! যো খায়া উ ভি পসৱায়া। যো নেই খায়া উ ভি পসৱায়া! এ কথার বাংলা অর্থ এরকম- বিয়ে হলো দিল্লির লাড্ডু। এটা যে খেয়েছে সেই ঝামেলায় পড়েছে। আবার যে খায়নি সেও ঝামেলায় আছে।

তার মানে অবস্থা কি দাঁড়াল? বিয়ে মানেই একটা ঝামেলা। শাখের করাত। এদিকে গেলেও কাটে। ওদিকে গেলেও কাটে। এমন বাস্তবতায় আমার এক রসিক বন্ধু বললেন- দিল্লির লাড্ডু যদি না খেয়েও পসৱাতে হয় তাহলে আমি খাওয়ার পক্ষেই আছি। অর্থাৎ আমি বিয়ের পক্ষে। বিয়ে নিয়ে হয়তো এরকম আরও অনেক উক্তি আছে। কোনোটা হয়তো সত্য। কোনোটা মিথ্যা। কোনোটা বিয়ে নিয়ে শুধুই রসিকতা। কিন্তু আমাদের কাছে চরম সত্য হলো- পৃথিবীর মানুষদের মাঝে বিয়ে প্রথা চালু হবার পর থেকেই মানুষ সভ্য হতে শেখে। মানুষের মাঝে প্রেম- ভালোবাসা আর দায়িত্ববোধ জন্ম নেয়। বিশেষ করে আমাদের সমাজে বিয়ের গুরুত্ব অপরিসীম। এইযে আমরা পরিবার ও বন্ধুর কথা বলি। এর মূল শেকড়ই হলো- বিয়ে। বিয়ের মাধ্যমে একটি পরিবারের জন্ম হয় এবং এই পরিবারকে কেন্দ্র করেই বন্ধু শুভাকাঙক্ষীদের সংখ্যা বৃদ্ধি হতে থাকে। পরিবার থেকেই সৃষ্টি হয় ভালো কাজের সূচনা। পরিবারই গড়ে তোলে ভালো মানুষ। যারা এক সময় নেতৃত্ব দেয় সমাজ ও রাষ্ট্র কাঠামোয়।

তার মানে বিয়ে একমাত্র বিয়েই আমাদের সামাজিক কাঠামোকে অত্যন্ত দৃঢ় করে। একটি বিয়ে টিকে থাকা মানে একাধিক সুন্দর স্বপ্নের বাস্তবায়নের পথে পা ফেলা। এখানে পারস্পরিক আস্থা, সমাঝোতা, শ্রদ্ধাবোধ ও ভালোবাসা বেশ গুরুত্বপূর্ণ। অনেকেই প্রশ্ন করেন- বিয়ে আসলে টিকে থাকে কীভাবে? বিয়ে টিকে থাকার মূলমন্ত্র কী? অনেক বছর প্রেম করার পর একদিন দু’জনে বিয়ে করে সংসার শুরু করলো। এক মাসের মাথায় দু’জনের ছাড়াছাড়ি। তাহলে এই যে, প্রেমের দিনগুলোতে কত শত সংলাপ আওড়ানো- আমি তোমাকে ছাড়া বাঁচবো না… আমি তোমাকে প্রাণের চেয়েও ভালোবাসি… ছাড়াছাড়ি হবার সময় কোথায় যায় এসব অনুভূতি?

সার্বিক দিক পর্যবেক্ষণে আমরা একটা ব্যাপারে স্থির হতে পারি তাহলো- আমি তোমাকে ছাড়া বাঁচবো না এটা হলো- কথার কথা। আসল কথা হলো- পরস্পরের প্রতি আস্থা। সেই সঙ্গে দরকার ভুল ত্রুটি শুধরে নেয়ার ব্যাপারে পারস্পরিক সমঝোতা আর শ্রদ্ধাবোধ। তাহলেই ভালোবাসার জন্ম হবে। একটি সফল বিয়ের জন্য যা খুবই জরুরি।

আবারও সহজ-সরল সমীকরণটাই তুলে ধরি। আস্থা+সমঝোতা+শ্রদ্ধাবোধ+ভালোবাসা=বিয়ে

এই মওসুমে যারা বিয়ে করছেন তারা নিশ্চয়ই এই সমীকরণটিকে গুরুত্ব দিবেন। সবার জন্য রইলো আনন্দ আলোর শুভ কামনা। আনন্দ আলোর এই বিশেষ সংখ্যাটির জন্য যারা বিজ্ঞাপন ও অন্যান্য সহায়তা দিয়েছেন তাদের জন্য রইলো অশেষ কৃতজ্ঞতা। বিশেষ সংখ্যাটির জন্য প্রচ্ছদমুখ হয়েছেন এই সময়ের আলোচিত অভিনেত্রী বিদ্যা সিনহা মিম। আনন্দ আলো পরিবারের পক্ষ থেকে তাকে জানাই অনেক কৃতজ্ঞতা। বিয়ে সংখ্যার জন্য অরা বিউটি লাউঞ্জের আন্তরিক সহযোগিতার কথাও কৃতজ্ঞতার সঙ্গে স্মরণ করছি।

সবশেষে অশেষ কৃতজ্ঞতা সকল বিজ্ঞাপন দাতা প্রতিষ্ঠান  ও পাঠকদের প্রতি। ভালো থাকবেন সবাই।