আলাউদ্দিন আলীর সোনালি গান

আলাউদ্দিন আলীর সোনালি গান

1718
SHARE

বাংলা আধুনিক গানের সুরের আকাশে ধ্র“বতারার মত উজ্জ্বল এক নাম আলাউদ্দিন আলী। গুণী এই সুর স্রষ্টা বহু স্মরণীয় গানের সরকার। চিরায়ত বাংলাগানের সুরের সঙ্গে আধুনিক সংগীত ভাবনার অসাধারণ সংযোগ স্থাপন করেছেন আলাউদ্দিন আলী। তার সুরের সেরা কিছু গান নিয়ে সম্প্রতি ইমপ্রেস অডিও ভিশন প্রকাশ করেছে ‘আলাউদ্দিন আলী সোনালি গান’। অ্যালবামটিতে গান রয়েছে মোট ১০টি। গানগুলো হলোÐ ‘কেউ কোন দিন আমারে তো কথা দিল না’, ‘শত জনমের স্বপ্ন’, ‘আছেন আমার মোক্তার’, ‘একবার যদি কেউ ভালোবাসতো’, ‘বাড়ির মানুষ কয়’, ‘বন্ধু তিন দিন তোর’, ‘কেঁদো না আর কেঁদো না’, ‘ভেঙেছে পিঞ্জর’, ‘এই দুনিয়া এখনতো আর সেই দুনিয়া নাই’ ও ‘হারানো দিনের মত’। গানগুলোতে কণ্ঠ দিয়েছেন সাবিনা ইয়াসমিন, সৈয়দ আব্দুল হাদী, রুনা লায়লা, সুবীর নন্দী, এন্ড্রু কিশোর ও মিতালী মুখার্জী।

বাবার গান নিয়ে ফেরদৌসী রহমান

FERDOSI-RAHAMAN-(46)পল­ীগীতি সম্রাট আব্বাস উদ্দীনের জনপ্রিয় গানের সংকলন প্রকাশের উদ্যোগ নিয়েছেন তার মেয়ে বরেণ্য কণ্ঠ শিল্পী ফেরদৌসী রহমান। বেশ কিছুদিন ধরেই তিনি আব্বাস উদ্দীনের কালজয়ী গানগুলো সংগ্রহ করে যাচ্ছেন। ইতিমধ্যেই বাবার রেকর্ডকৃত কিছু গানও খুঁজে পেয়েছেন তিনি। গানগুলো হলো ‘ওকি গড়িয়াল ভাই’, ‘ফান্দে পড়িয়া বগা কান্দে’, ‘হাড় কালা করলাম রে’, ‘তোরা দেখে যা আমিনা মায়ের কোলে’, ‘আমার গহিন গাঙের নাইয়া’ ইত্যাদি। এ প্রসঙ্গে ফেরদৌসী রহমান বলেন, বিভিন্ন মঞ্চে নতুন প্রজন্মের ছেলেমেয়েদের কণ্ঠে বাবার গানগুলো শুনে অভিভ‚ত হই। কিন্তু অনেকেই দেখি, গানগুলো সঠিকভাবে গাইছে না। তাই বাবার গানগুলো নতুনভাবে প্রকাশ ও সংরক্ষণের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমি মনে করি, বাংলা গানের ঐতিহ্য ধরে রাখতে এ গানগুলোর সংরক্ষণ দরকার। এর মাধ্যমে গানগুলো যুগ যুগ বাঁচিয়ে রাখতে হবে। এ নিয়ে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে আলোচনা করছি। তবে এখনও কিছু চূড়ান্ত হয়নি।

মা-মেয়ে এক সঙ্গে

SABINA-YASMIN-(3)বাংলাদেশের জীবন্ত কিংবদন্তী সংগীত শিল্পী সাবিনা ইয়াসমিন দীর্ঘদিন পর একটি গানে কণ্ঠ দিলেন। গানটিতে তার সঙ্গে কণ্ঠ দিয়েছেন তার মেয়ে শিল্পী বাঁধনও। গানটি লিখেছেন জাহিদ আকবর। গানটির সুর সংগীতায়োজন করেছেন মাকসুদ জামিল মিন্টু। এ গানটি স্থান পাবে বাঁধনের একক অ্যালবামে। এই গানের মাধ্যমে দীর্ঘ নয় বছর পর মেয়ের সঙ্গে কোনো গানে কণ্ঠ দিলেন সাবিনা ইয়াসমিন। সর্বশেষ ২০০৬ সালে মেয়ের প্রথম অ্যালবাম ‘প্রতিচ্ছবি’তে একসঙ্গে গান করেছিলেন তিনি।  একসঙ্গে পুলক-পড়শী প্রথম একসঙ্গে গাইলেন পুলক এবং পড়শী। রিয়েলিটি শো থেকে আগত জনপ্রিয় এই দু’জন শিল্পী সম্প্রতি একটি চলচ্চিত্রের গানে কণ্ঠ দিলেন। ‘তুমি এলে জীবনে’ শিরোনামের রোমান্টিক এই গানটির কথা ও সুর দিয়েছেন কামরুল খাঁন। আর সংগীতায়োজন করেছেন বাবুল রাজা ও হৃদয়। এম কে জামান পরিচালিত ‘বিষাক্ত ইয়াবা’ চলচ্চিত্রে গানটি ব্যবহার করা হবে বলে জানিয়েছেন পুলক। তিনি বলেন, পড়শী এই সময়ের বেশ জনপ্রিয় শিল্পী। আমি মূলত সুফি ঘরানার গান করি। আর ও সফট রোমান্টিক ধাঁচের গান গায়। সে জন্যই হয়তো এতদিন আমাদের একসঙ্গে গাওয়া হয়নি। তবে আমাদের প্রথম গানটি এক কথায় দারুণ হয়েছে।’ অন্যদিকে পড়শী বলেন, ‘আমি পুলক ভাইয়ের গানের ভক্ত। একটু দেরিতে হলেও উনার সঙ্গে গান করেছি।’