Home প্রতিবেদন আপনার গান জলতরঙ্গের মতো…

আপনার গান জলতরঙ্গের মতো…

SHARE
Bonna-1

গুণী শিল্পী রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা নিজের জন্মদিনে অকৃত্রিম শ্রদ্ধায় মাথা নুয়ে স্মরণ করলেন প্রিয় বাবা-মাকে। চ্যানেল আইতে গানে গানে সকাল শুরু সরাসরি অনুষ্ঠানে তিনি বলেছেন, ‘আজ বাবা-মাকে বিশেষ ভাবে স্মরণ করছি। বাবা ছিলেন সরকারি চাকরিজীবী। মা স্কুল শিক্ষক। বাবা প্রচÐ রবীন্দ্র অনুরাগী ছিলেন। বাবার মুখে রবীন্দ্রনাথের কবিতা শুনতে শুনতেই রবীন্দ্রনাথের সঙ্গে পরিচয়। শান্তি নিকেতনে সংগীত নিয়ে যখন পড়তে যেতে চেয়েছিলাম, তখন বাবা একটু আপত্তি করলেও সমর্থন দিয়েছিলেন মা। গানকে পেশা হিসেবে নিব, তা কখনও ভাবিনি। গান যখন আমার পেশা হয়েই গেল, তখন বাবা-মা খুব সাপোর্ট করেছেন, উৎসাহ যুগিয়েছেন। তা না হলে আজ এত দূর আসতে পারতাম না।

গাজী আব্দুল হাকিমের বাঁশীর সুরে চ্যানেল আই-এর ছাদ ঘরে শুরু হয় বন্যার জন্মদিন উপলক্ষে ‘গানে গানে সকাল শুরুর বিশেষ পর্ব’। প্রিয় শিল্পীকে শুভেচ্ছা জানাতে নগরীর গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের মধ্যে অনেকেই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। তাদের মধ্য থেকে বন্যার গুরুভাই বিশিষ্ট রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী সাদী মুহম্মদ, নাট্য ব্যক্তিত্ব আতাউর রহমান বক্তব্য রাখেন। বন্যার জন্মদিনে টেলিফোনে শুভেচ্ছা জানান বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, বিশিষ্ট কথাসাহিত্যিক ইমদাদুল হক মিলনসহ অনেকে। তোফায়েল আহমেদ বলেন, “বন্যা, আপনাকে পেয়ে জাতি হিসেবে আমরা অনেক গর্বিত। আপনি আরও অনেকদিন গান নিয়ে থাকবেনÑ এই কামনা করি। আপনার কাছে আগামী প্রজন্ম শিখছে, নতুন প্রজন্ম গড়ে উঠছে এটা আমাদের জন্য অনেক আশার”।

ইমদাদুল হক মিলন বলেন, ‘বন্যা, প্রতিদিন আমার সকাল শুরু হয় আপনার গান দিয়ে। আপনার গান জলতরঙ্গের মতো… শরতের আকাশের মতো…। আপনি এভাবেই থাকুন, দীর্ঘজীবী হোন”।

অনুষ্ঠানে বন্যা যখন গান গাইছিলেন তখন একই সঙ্গে ছবি আঁকাছিলেন বিশিষ্ট চিত্রশল্পী আব্দুল মান্নান। অনুষ্ঠান শেষে তিনি ছবিটি প্রিয় শিল্পী বন্যাকে উপহার দেন।

বন্যা বলেন, ‘জন্মদিন হয় একজনের, কিন্তু আনন্দ সবার। আনন্দ কখনও একার হয় না। সবার সঙ্গে ভাগাভাগি করে নিলে তবেই আনন্দ বাড়ে’।

সত্যি সেদিন বন্যার জন্মদিনে চ্যানেল আই-এর ‘গানে গানে সকাল শুরু’ অনুষ্ঠানে আনন্দেরই বন্যা বয়ে গিয়েছিল। শুভ জন্মদিন রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা, আমাদের প্রিয় বন্যা আপা….