অভিনয় নিয়েই থাকতে চাই

অভিনয় নিয়েই থাকতে চাই

748
0
SHARE
jenny

বর্তমানে একাধিক ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করছেন অভিনেত্রী জেনী। অভিনয় ও সমসাময়িক বিষয় নিয়ে কথা হলো তার সঙ্গে-

আনন্দ আলো: এখন কী কাজ নিয়ে ব্যস্ত রয়েছেন?

জেনী: বর্তমানে বেশ কয়েকটি নতুন ধারাবাহিকে অভিনয় করছি। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে- সকাল আহমেদের ‘ফুল মহল’, মাসুদ মহিউদ্দিনের ‘মায়াবন বিহারিনী’, দীপংকর দীপনের ‘টক্কর’ ও অ¤øান বিশ্বাসের ‘অনন্যা’। এছাড়াও বেশকিছু খন্ড নাটকে কাজ করার কথা রয়েছে।

আনন্দ আলো: নতুন কোনো বিজ্ঞাপনে কাজ করেছেন?

জেনী: না, তবে এরইমধ্যে কয়েকটি বিজ্ঞাপনে কাজ করার কথা হয়েছে। ফাইনাল এখনো কিছু হয়নি।

আনন্দ আলো: চলচ্চিত্রে অভিনয়ের ইচ্ছে নেই?

জেনী: অবশ্যই আছে। আমি এখন পর্যন্ত চলচ্চিত্রে অভিনয় করিনি। তবে অবশ্যই চলচ্চিত্রে অভিনয় করতে চাই। কিন্তু সেটি ভালো স্ক্রিপ্ট ও চ্যালেঞ্জিং চরিত্র হতে হবে।

আনন্দ আলো: মিডিয়ায় শুরুর কথা মনে পড়ে?

জেনী: হ্যাঁ। মনে আছে- ২০০৫ সালে ইউনিলিভার-এর বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে কাজ করি। এটি নির্মাণ করেছিলেন অমিতাভ রেজা। এতে আমার সহমডেল ছিলেন সংগীতশিল্পী তাহসান। এরপর আমি একই নির্মাতার কিছু বিজ্ঞাপনে কাজ করি। বিজ্ঞাপনগুলোও দারুণ প্রশংসিত হয়। তারই ধারাবাহিকতায় আশরাফুল আলম রিপনের ‘এপিঠ ওপিঠ’ খন্ড নাটকে অভিনয় করি। আমার অভিনীত প্রথম ধারাবাহিক নাটক ছিল ‘রমিজের আয়না’।

আনন্দ আলো: ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা?

জেনী: আমি খুব বেশি প্ল্যান করে কাজ করি না। তবে কোনটা নিজের জন্য ভালো হবে সেটা বুঝি। তাই সেই হিসেবেই কাজ করি। অভিনয় নিয়েই আমার সকল চিন্তা-ভাবনা। অভিনয় নিয়েই থাকতে চাই।

সব চরিত্র কাল্পনিক নয়!

mosharraf-juiতারকা দম্পতি মোশাররফ করিম ও রোবেনা রেজা জুঁই আবারও জুটিবদ্ধ হয়ে একটি ঈদের নাটকে অভিনয় করেছেন। নাটকের নাম ‘সব চরিত্র কাল্পনিক নয়’। নাটকে বাস্তব জীবনের মতোই মোশাররফ করিম ও জুঁই স্বামী স্ত্রীর চরিত্রে অভিনয় করেছেন। রাজধানীর উত্তরায় একটি শুটিং হাউসে নাটকটির দৃশ্য ধারণের কাজ এরই মধ্যে শেষ হয়েছে। এটি পরিচালনা করেছেন ফজলুল সেলিম। নাটকের গল্প সম্পর্কে নির্মাতা বলেন, ‘এ নাটকে মোশাররফ করিম একজন অভিনেতার চরিত্রে রূপদান করেছেন। যে ধরনের চরিত্রে তিনি একের পর এক কাজ করেছেন তাতে কাজ করতে তার আর ভালো লাগে না। চ্যালেঞ্জিং ভিন্ন ধরনের চরিত্রে কাজ করার খুব ইচ্ছে তার। যে কারণে সাধারণ চরিত্রে কাজ করা ছেড়ে দেন তিনি । একসময় কাজ ছাড়ার কারণে অর্থনৈতিক সমস্যায় পড়েন তিনি। তার স্ত্রীও তাকে ছেড়ে চলে যায়। কিন্তু ভালো চরিত্রে, চ্যালেঞ্জিং চরিত্রে কাজ করার ক্ষুধা দমে যায় না। এভাবেই নাটকের গল্প এগিয়ে যায়।’ মোশাররফ করিম বলেন, ‘নিজের জীবনের সঙ্গে অনেকটাই সাদৃশ্যপূর্ণ একটি গল্পে অভিনয় করেছি। যে কারণে কাজটি করতে গিয়ে আমি গল্পের সঙ্গে বেশ সম্পৃক্ত হয়ে পড়েছিলাম। বাস্তব জীবনের মতো গল্পেও আমার স্ত্রী জুঁই অভিনয় করেছেন আমার বিপরীতে। সব মিলিয়ে দারুণ একটি কাজ করলাম।’

ধারাবাহিককে নাদিয়ার না

নতুন মিশনে অভিনেত্রী নাদিয়া আহমেদ। আগামী মাসের মাঝামাঝি থেকে শুধু খন্ড নাটকে কাজ করবেন বলে জানান তিনি। সেই কারণে বর্তমানে একাধিক ধারাবাহিক নাটকের শুটিং করছেন নাদিয়া। তিনি বলেন, ‘চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহের মধ্যে ধারাবাহিকগুলোর কাজ শেষ করব। এরপর খন্ড নাটকের শুটিং শুরু Nadiaকরব। মূলত এগুলো আসছে ঈদে প্রচার হবে। এরই মধ্যে একাধিক নির্মাতাকে নাটকের সিডিউল দিয়ে দিয়েছি। তাই এক কথায় বলতে ঈদের নাটকের জন্যই ধারাবাহিক থেকে বিরতি নিচ্ছি। তাছাড়া আমি খন্ড নাটকে কাজ করতেই বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। খন্ড নাটকে বিভিন্ন চরিত্রে নিজেকে উপস্থাপন করা যায়। ধারাবাহিকের দীর্ঘ চরিত্রের কারণে বৈচিত্র্যতা পাওয়া যায় না।’ বর্তমানে নাদিয়া অভিনীত একাধিক ধারাবাহিক নাটক বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে নিয়মিত প্রচার হচ্ছে। এগুলো হচ্ছে- বাংলাভিশনে ‘বৃষ্টিদের বাড়ি’ এটিএন বাংলায় ‘আয়না ঘর’, দেশ টিভিতে ‘উৎসব’, এনটিভিতে ‘সংসার’, চ্যানেল আইয়ে ‘তিন পাগলের হলো মেলা’ শীর্ষক ধারাবাহিকগুলো প্রচার হচ্ছে।